দেশ ও মানুষের কথা বলে

[vc_row][vc_column]

[/vc_column][/vc_row]

প্রতি বছরের মতো নবান্ন উপলক্ষে জয়পুরহাটের কালাইয়ে এবারও বসেছে ঐতিহ্যবাহী মাছের মেলা

নভেম্বর,১৯,২০২২

ফারহানা আক্তার,,জয়পুরহাট প্রতিনিধি:

জয়পুরহাটের পৌর শহরের পাঁচশিরা বাজারে বসেছে জমজমাট ঐতিহ্যবাহী মাছের মেলা। পঞ্জিকা অনুসারে অগ্রহায়ণ মাসের প্রথম বৃহস্পতিবার জেলায় একমাত্র পাঁচশিরা বাজারে প্রতিবছর বসে এই মাছের মেলা। তাই বছরের মত এই দিনের যেন অপেক্ষায় থাকেন এ উপজেলাসহ আশ পাশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের সর্বসাধারন। পৌর এলাকার পাঁচশিরা বাজারে কাক ডাকা ভোর থেকে দিনব্যাপী মাছের মেলায় বেচা-কেনার এমন উৎসবে হাঁক-ডাক ও দর কষাকষি চলে ক্রেতা-বিক্রেতাদের মধ্যে ।
এ উপলক্ষ্যে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে থাকা এই এলাকার জামাই,মেয়ে, ইষ্টি-কুটুমরা আসেন এখানকার স্বজনদের বাড়ি বাড়ি। মেলা থেকে সেরা মাছ কিনে জামাইরা নিয়ে যান শ্বশুরবাড়িতে। তাই এ মেলাকে জামাই মেলাও বলা হয়ে থাকে। জামাইদের উপলক্ষ্য হলেও শুধু জামাই-ই নয়, ভোর থেকেই মেলায় ভীর করেন ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে নানা বয়সী মানুষ।
ক্রেতা-বিক্রেতা আর কৌতুহলী মানুষের ঢলে মেলাটি পরিনত হয় জনসমুদ্রে। সকাল থেকেই ক্রেতারা ভিড় জমান মাছের মেলায়। মেলার শতাধিক মাছের দোকানে থরে থরে সাজানো হয় দেশীয় জাতের রুই, কাতলা, মৃগেল চিতল, বোয়াল, সিলভার কার্প, ব্রিগেড, পাঙ্গাস, বাঘাআইড়সহ নানা ধরনের মাছ। মেলায় ১০ কেজি থেকে আরো বেশী ওজনের রুই-কাতলা, মৃগেল মাছ কেজি প্রতি ৬’শ’ থেকে দেড় হাজার’ টাকা এবং বাঘাআইড়, বোয়াল ও চিতল মাছ প্রতি কেজি ১ হাজার ৩’শ’ থেকে ২ হাজার টাকা বিক্রি হয়। আর মাঝারি আকারের মাছ ৩৯০ টাকা থেকে ৫০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে। এ বারে দ্রব্য মূল্যের উর্দ্ধগতির কারনে অন্য বছরের তুলনায় কিছুটা কম হলেও ক্রেতা সমাগম হওয়ায় বেচাকেনাও হয় উল্লেখযোগ্য পরিমানে।

www.bbcsangbad24.com

Leave A Reply

Your email address will not be published.