জানুয়ারী,১১,২০২১

জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃ
জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার আয়মা রসুলপুর ইউনিয়নের পূর্ব খাসবাট্রা গ্রামের পাশদিয়ে ছোট যমুনা শাখা নদীরপাড় ভেঁপুদিয়ে অবৈধভাবে খনন করার ধুম চলছে । গত ১৫ দিন হতে সরকারি নদীর পাড় সহ খাসবাট্রা গ্রামের বাড়ীর পাশে আবাদি জমি প্রায় ১৫-২০ ফিট গভীর ভাবে খনন করে প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে ভূমি দস্যুদের একটা চক্র ।

কয়েক বছর ধরে এসব ভূমি দস্যুরা প্রকাশ্য ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার গুলোকে বিভিন্ন প্রকার হুমকি দিয়ে আবাদি জমি খনন করে আসছে । স্থানীয় খাসবাট্টা গ্রামের ভূক্তভোগী কৃষক পরিবারের সদস্যরা জানান, অবৈধভাবে নদীরপাড় খননের ফলে প্রায় ৫০ একর আবাদি জমি ইতিমধ্যে নদী গর্ভ বিলিন হয়ে গেছে । এভাবে নদীর পাড় ও ফসলী জমি কাটার ফলে পাশ্ববর্তী ফসলী জমিসহ বসতবাড়ীর ও এক সময় নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। গত ৩০ ডিসেম্বর/২০ইং তারিখে উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর অভিযোগ করেও জানিয়েছেন এলাকাবাসী। অদ্যবধি কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি বরং তাড়াতাড়ি করে মাটি কেটে নিয়ে যাওয়ার জন্য ভিঁপু ভাড়া করে নিয়ে আসা হয়েছে।

১০,জানুয়ারী দুপুরে সাংবাদিকের একটি টিম সরেজমিনে গিয়ে এসব ভেঁপুদিয়ে অবৈধভাবে নদীরপাড় খনন কাজের ছবি ক্যামেরায় ধারণ করে ফিরার সময় ভূমি দস্যুরা পিছন দিক থেকে দেশীয় অস্ত্র, লাঠি হাতে নিয়ে থামার জন্য বিভিন্ন প্রকার অকথ্য ভাষায় গালি-গালজ করতে থাকে এবং বলতে থাকে সব মহলকে ম্যানেজ করে আমরা মাটি কাটছি, তোদের করার কিছুই নেই । তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থল ত্যাগ করে মোঠো ফোনের মাধ্যমে বিষয়টি পাঁচবিবি উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরমান হোসেনকে অবহিত করা হলে তিনি ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন। দিন শেষে আবারো বিষয়টি সর্ম্পকে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান, সারাদিন ব্যস্ত থাকার কারনে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া সম্ভব হয়নি, আগামীকাল লোক পাঠিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে

www.bbcsangbad24.com

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here