ফেব্রুয়ারী,০৮,২০২১

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি : 

মুন্সিগঞ্জে স্বামীর হাতে স্ত্রী পারুল বেগমকে (৪২) হত্যার অভিযোগে উঠেছে। এই ঘটনায় স্বামী আলমগীর খানকে আটক করেছে সদর থানা পুলিশ। আজ সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারী) ভোড় রাতে তাকে আটক করা হয়।

এর আগে রবিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) রাত ১ টার দিকে সদর উপজেলার পঞ্চসার ইউনিয়নের কাশীপুর গ্রামে এই হত্যার কান্ডের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, দীর্ঘদিন যাবত স্বামী আলমগীর খানের সাথে স্ত্রী পারুল বেগমের
পারিবারিক কলোহ চলছিলো। সেই ঘটনায় তাদের মধ্যে গত ৬ মাস আগে তালাক (ডির্ভোস) হয়ে যায়। পরে ৩ দিন আগে পুনরায় দু’জনের মধ্যে মিল হলে বিয়ে করেন তারা।

রবিবার দিবাগত রাত ১ টার দিকে দুজনের মধ্যে আবারও কলোহ শুরু হয়। এসময় দুজনের মধ্যে ব্যাপক হাতাহাতির ঘটনা ঘাটে। ধারণা করা হচ্ছে স্ত্রী পারুল বেগমকে গলা টিপে হত্যা করে স্বামী আলমগীর খান। তাদের চিকিৎকার শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে পারুলকে মৃত পরে থাকতে দেখে রাতে পুলিশের খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতলে নিয়ে আসে।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত স্বামী আলমগীর খানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

নিহত পারুল বেগমের দুই ছেলে ও এক মেয়ে সন্তান রয়েছে। আটক আলমগীর ঢাকা জেলার নবাবগঞ্জ এলাকার মোসলেম ব্যাপারির ছেলে। তারা কাশিপুর এলাকায় মালেক ব্যপারীর জামি ভাড়া নিয়ে বাড়ি তৈরি করে বসবাস করছিল।

এ বিষয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, রাতে ঘটনার খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। হত্যাকান্ডের সাথে জড়িতের অভিযোগে নিহতের স্বামী আলমগীর খানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

www.bbcsangbad24.com

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here