ফেব্রুয়ারী,১১,২০২১

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি: 

পদ্মা সেতু দেখতে এসে নদীতে গোসল করতে নেমে লাশ হয়েছেন ২ স্কুল ছাত্র বাপ্পি (১৫) ও তামিম (১৫)। মাওয়া নৌ পুলিশ লাশ দুটি বিকাল সাড়ে ৪ টার দিকে উদ্ধার করে মাওয়া পুরানো ঘাট এলাকায় রেখেছেন বলে বিবিসি সংবাদকে বলেন, মাওয়া নৌ পুলিশের ইনচার্জ সিরাজুল কবির।

তিনি আরো বলেন,ময়না তদন্ত শেষে লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। মৃত স্কুলছাত্রের নাম বাপ্পি (১৫) ও তামিম (১৫)। তারা দুজনই দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের শুভাঢ্যা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রণীর ছাত্র। স্থানীয় লোকজনের মাধ্যমে খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে নিখোঁজের দেড় ঘণ্টা পরে বাপ্পিকে এবং সাড়ে ৩ ঘন্টা পরে সাড়ে ৪ টার দিকে তামিমের মরদেহ নদী হতে উদ্ধার করি।

জানাগেছে,ঢাকার কেরানীগঞ্জ থেকে ২৬ জন বন্ধু মিলে মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলার মাওয়া এলাকায় আজ বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারী) পদ্মা সেতু দেখতে আসে। পরে তারা পদ্মা সেতু দেখার পর সেতুর নিচের পূরানো মাওয়া ঘাটের কান্দিপাড়া এলাকায় দুপুর ১টার দিকে গোসল করতে নামেন কয়েক বন্ধু।

হঠাৎই পানিতে ডুবে যায় তামিম ও বাপ্পি। পরে খবর পেয়ে প্রথমে বাপ্পির পরে তামিমের মরদেহ উদ্ধার করে নৌ পুলিশ কোস্টগার্ডের সদস্যরা।
তামিম কেরানিগঞ্জ জেলার শূভ্যাঢা গ্রামের আজাদ হোসেন এবং বাপ্পি একই গ্রামের সিরাজ মিয়ার ছেলে।

বাপ্পির সঙ্গী রাব্বি জানায়, দুপুরে কেরানীগঞ্জ থেকে তারা ২৬ বন্ধু পদ্মা সেতু এলাকায় ঘুরতে যায়। ট্রলারে করে পদ্মার কান্দিপাড়া চরে গিয়ে নদীতে গোসল করতে নামে আট থেকে নয় জন। তখন অন্যরা ট্রলারে উঠতে পারলেও খুঁজে পাওয়া যায়নি বাপ্পি ও তামিমকে।

www.bbcsangbad24.com

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here