ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২১,

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছে প্রতিদিন লাখ লাখ মানুষ। এই অদৃশ্য ভাইরাসটি কেড়ে নিচ্ছে হাজার হাজার মানুষের প্রাণ।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী এ পর্যন্ত প্রায় ১৯১টি দেশে ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস।

গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি) আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়াল্ডওমিটারসের তথ্যানুযায়ী, বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১০ কোটি ৮২ লাখ ৯৮ হাজার ৩৭১ জন। মারা গেছেন ২৩ লাখ ৭৮ হাজার ৮৬৩ জন। সুস্থ হয়েছেন ৮ কোটি ৩৪ লাখ ৩ হাজার ৩৯৫ জন।

প্রাণঘাতী ভাইরাসটির থাবায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিতের সংখ্যা ২ কোটি ৮০ লাখ ২  হাজার ২৪০ জন। দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ৪ লাখ ৮৬ হাজার ৯২২ জন।

তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ৮৮ লাখ ৪১৩ জন। দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ১ লাখ ৫৫ হাজার ৪৮৪  জন।

তৃতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিলে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৯৭ লাখ ১৬ হাজার ২৯৮ জন। দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ২ লাখ ৩৬ হাজার ৩৯৭ জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। চীনে করোনায় প্রথম কোনো রোগীর মৃত্যু হয় ২০২০ সালের ৯ জানুয়ারি। তবে তার ঘোষণা আসে ১১ জানুয়ারি।

২০২০ সালের ১৩ জানুয়ারি চীনের বাইরে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় থাইল্যান্ডে। পরে বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়ে অদৃশ্য ভাইরাসটি। এরই মধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ করোনার টিকা প্রদান শুরু করেছে। বাংলাদেশেও করোনার টিকাদান শুরু হয়েছে।

www.bbcsangbad24.com

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here