ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২১,

রাইসুল ইসলাম লিটন, টাঙ্গাইল:

টাঙ্গাইলেরর ঘাটাইল উপজেলার দেওপাড়া ইউনিয়ন বিএনপির এক প্রভাবশালী ব্যক্তির বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগের পদ ব্যবহার করে পোস্টার ও ফেস্টুন ব্যবহার করে এলাকায় প্রচারণা চালানোর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় বিএনপি ও আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভ ও নিন্দার ঝড় বইছে।

জানা গেছে, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও জাতীয় শহীদ দিবস উপলক্ষে উপজেলার দেওপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-আহবায়কের পদ ব্যবহার করে মোহাম্মদ দেওয়ান মারুফ শামীম নামের এক ব্যক্তি আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে স্থানীয়ভাবে পোস্টার ও ফেস্টুন তৈরি করে এলাকার প্রচারণা চালাচ্ছে। বিষয়টি স্থানীয় বিএনপি, আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের নজরে এলে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার তৈরি করেছে।

এ বিষয়ে দেওপাড়া ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আব্দুস সালাম মুঠোফোনে জানান, আওয়ামী লীগ নেতার দাবীদার মোহাম্মদ দেওয়ান মারুফ শামীম আমার সংগঠনের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক। বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময়ে সে আমাদের দল থেকে চলে যায়। বিষয়টি নিয়ে সাংগঠনিক কোন ব্যবস্থা নেইনি বা তার কাছ থেকেও পদত্যাগ পত্র পাইনি।

দেওপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট রেজাউল করিম বাদশা জানান, আওয়ামী লীগের পদ ব্যবহারকারী শামীম পারিবারিক ভাবে বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়িত। আমাদের সংগঠনের তার কোন প্রকার প্রাথমিক সদস্য পদও নেই। বিষয়টির আমরা তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।

ঘাটাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শহীদুল ইসলাম লেবু জানান, মোহাম্মদ দেওয়ান মারুফ শামীম আমাদের সংগঠনের সদস্য নয়। শামীম বিএনপি জামায়েত জোট সরকারের সময়ে পুরান ঢাকায় দীর্ঘদিন অবস্থান করেছিল। সেসময় সেখানে সময়ে নাশকতা করেছিলো। যে বিষয়গুলো নিয়ে ওই এলাকায় তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলাও রয়েছে। সে পোস্টার ও ফেস্টুন ছাপিয়ে স্থানীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে বিভ্রান্তি তৈরির অপচেষ্টা চালাচ্ছে।

এই ব্যাপারে অভিযুক্ত মোহাম্মদ দেওয়ান মারুফ শামীম বলেন, ঘাটাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন দেয় কিভাবে? আর আমি অনেক আগেই বিএনপি থেকে চলে এসেছি।

www.bbcsangbad24.com