ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২১,

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, করোনা ভাইরাস মহামারির শুরু থেকেই আমরা ভাইরাস মোকাবেলায় যা যা প্রয়োজন সব পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। ইতোমধ্যে টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়েছে। আমরা আমাদের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ সর্বস্তরের মানুষকে আওতায় আনতে চাই। খুব দ্রুত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে চাচ্ছি।

শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বাংলাদেশের উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব বলেন তিনি। এতে গণভবন প্রান্ত থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুক্ত হন। এ সময় তার সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর কনিষ্ঠ তনয়া শেখ রেহানা, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ উপস্থিত ছিলেন।

সরকারপ্রধান আরও বলেন, যখন টিকা নিয়ে গবেষণা হচ্ছে তখন থেকেই আমরা খোঁজা শুরু করেছিলাম কোথা থেকে সংগ্রহ করা যায় আমরা আগেই আগাম টাকা দিয়ে টিকার বুকিং দিয়ে রেখেছিলাম। সেজন্যই এত তাড়াতাড়ি টিকাদান কার্যক্রম শুরু করা সম্ভব হয়েছে। আরও ৩ কোটি ডোজ টিকা কেনা হবে।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে লেখক-সাংবাদিকদের নির্যাতন ইস্যুতে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ যখন গড়ে তুলেছি, তখন ডিজিটাল নিরাপত্তা দেয়াও আমাদের দায়িত্ব। কেউ যেন সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদে না জড়াতে পারে, সেজন্য ডিজিটাল নিরাপত্তা অপরিহার্য।

তিনি আরও বলেন, সমালোচনা যারা করছে, তারা সবকিছু কি অনুধাবন করছে? আজকের এই দিনে আমি অন্য কিছু বলতে চাই না। শুধু এটুকুই বলবো, কারও মৃত্যুই কাম্য নয়। তবে সেটাকে উদ্দেশ্য করে অশান্তিও কাম্য নয়। অসুস্থ হয়ে মারা গেলে কী করার আছে?

জনগনের দায়িত্বশীলতার কারণে করোনা ভাইরাস মোকাবেলা করা সম্ভব হয়েছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সর্বস্তরের মানুষ এগিয়ে এসেছেন। আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনগুলোর সবাই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দেশের মানুষের জন্য কাজ করেছেন। ঘরে ঘরে ত্রাণ পৌঁছে দিয়েছেন। এজন্য দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী।

আল-জাজিরার প্রতিবেদন নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, একটি চ্যানেল কি বলছে এটা বড় কথা নয়, দেশবাসীর বিচার করবে কোনটি সত্য কোনটি মিথ্যা কতটুকু সত্য কতটুকু মিথ্যা।

বাংলাদেশের স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়া নতুন প্রজন্মের উদ্দেশ্যে উৎসর্গ করেন সরকার প্রধান। বাংলাদেশের এই অর্জনকে ধরে রেখে নতুন পর্যন্ত তা আরও এগিয়ে নিয়ে যাবে বলেও আশা প্রকাশ করেন সরকার প্রধান।

www.bbcsangbad24.com