মার্চ ০৮, ২০২১,

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

সেনাবিরোধী আন্দোলনে যোগ দিয়ে মিয়ানমারে প্রাণ হারালেন আরও দুই বিক্ষোভকারী।

সোমবার (৮ মার্চ) তাদেরকে উত্তরাঞ্চলীয় শহর মিতকিইনাতে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।

ফেসবুকে পোস্ট করা এক ছবিতে এই দুটি মরদেহ দেখা গেছে। তাতে দেখা গেছে, রাস্তার ওপর পড়ে আছে দুটি মৃতদেহ।

প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলেছেন, এই ব্যক্তিরা আজকের বিক্ষোভে অংশ নিয়েছিলেন। এ সময় তাদের ওপর স্টান গ্রেনেড ও কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে পুলিশ। তখন পার্শ্ববর্তী ভবন থেকে সরাসরি গুলি করা হয়। এতে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

সূত্রটি জানান, এক প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, তিনি মৃতদেহ সরিয়ে নিতে সহায়তা করেছেন। মৃত দু’জনেরই মাথায় গুলি করা হয়েছে। আরও তিনজন আহত হয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, অমানবিকভাবে নিরস্ত্র সাধারণ মানুষকে হত্যা করছে সামরিক জান্তা। আমাদের তো অবশ্যই শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ করার অধিকার আছে।

এদিকে দেশটির প্রধান শহর ইয়াঙ্গুনে দোকানপাট, কলকারখানা, ব্যাংক বন্ধ রয়েছে। সবাই যোগ দিয়েছেন সামরিক জান্তাকে প্রতিহত করে গণতন্ত্র ফেরানোর মিছিলে। এ নিয়ে মিয়ানমারে অভ্যুত্থানের পর কমপক্ষে ৫২ জনের বিক্ষোভকারীর মৃত্যু হয়েছে।

তবে সর্বশেষ দু’ব্যক্তিকে কে বা কারা গুলি করেছে তা তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। বিক্ষুব্ধ জনতা সমবেত হয়েছেন ইয়াঙ্গুন, মান্দালয় ও বিভিন্ন শহরে। দক্ষিণে উপকূলীয় শহর দাউয়ি শহরে বিক্ষোভকারীদের সুরক্ষা দিয়েছে কারেন ন্যাশনাল ইউনিয়ন। তারা একটি জাতিগত সশস্ত্র গ্রুপ। এই গ্রুপটি দীর্ঘদিন ধরে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াই করে যাচ্ছে।

এদিকে ৯টি ট্রেড ইউনিয়নের শ্রমিকরা যোগ দিয়েছেন মিয়ানমারের এই বিক্ষোভে।

www.bbcsangbad24.com