মার্চ ১১, ২০২১,

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ আওয়ামী লীগের দু’পক্ষে সংঘর্ষ ও পৌর সভায় গোলাগুলির ঘটনায় এক যুবলীগ কর্মী নিহত হওয়ার জের ধরে পুলিশ পৃথক পৃথক স্থানে অভিযান চালিয়ে ২৮ জনকে আটক করেছে।

মঙ্গলবার দিবাগত রাতে উপজেলার বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

বুধবার (১০ মার্চ) সকাল ১১টার দিকে কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর জাহেদুল হক রনি এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
তিনি আরো জানান, আটককৃতদের বিষয়ে যাচাই বাচাই চলছে। কে কোন গ্রুপের লোক এ বিষয়ে কিছু জানাতে পারেনি পুলিশ।

তবে খতিয়ে দেখে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। পরিস্থিতি এখন পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

এছাড়াও পুলিশ যে কোন অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়াতে সর্তক অবস্থানে রয়েছে।

উল্লেখ্য,মঙ্গলবার (৯ মার্চ) বিকেল উপজেলা আ’লীগের প্রতিবাদ সভায় হামলার জের ধরে সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত বসুরহাট পৌরসভায় হামলা ও বিভিন্ন স্থানে থেমে থেমে দফায় দফায় কাদের মির্জা ও বাদল গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় কাদের মির্জার অন্তত ১০জন কর্মি গুলিবিদ্ধ ও উভয় গ্রুপের ৫০ জন আহত হয়েছে।

www.bbcsangbad24.com