এপ্রিল ০৫, ২০২১

নিজস্ব প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জ শীতালক্ষ্যা নদীর তীরে কয়লাঘাট এলাকায় কার্গো জাহাজের ধাক্কায় সাবিত আল হাসান নামে একটি লঞ্চ ডুবির ঘটনায় নিহত বেড়ে ২০ জনে দাড়িয়েছে।

শীতলক্ষ্যা নদীতে মালবাহী কার্গোর ধাক্কায় ডুবে যাওয়া লঞ্চটি তীরে আনা হয়েছে।

সোমবার (৫ এপ্রিল) বেলা সোয়া ১২টার দিকে উদ্ধারকারী জাহাজের সহায়তায় উল্টো করে লঞ্চটি নদীর পূর্বপারে তীরে আনা হয়।

এরপরই লঞ্চটির ভেতর থেকে মৃতদেহ বের করতে শুরু করেন উদ্ধারকারীরা।

দুপুর পৌনে ১টার দিকে সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী, লঞ্চের ভেতর থেকে আরও ১৫টি মৃতদেহ বের করে আনা হয়েছে।

নিহতদের মধ্যে তিনটি ও চারজন নারীও রয়েছেন। উদ্ধার তৎপরতা চলছে। আরও কয়েকটি মৃতদেহ ভেতরে রয়েছে।

এর আগে রাতেই পাঁচ নারীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। সবমিলিয়ে লঞ্চডুবিতে ২০ জনের লাশ উদ্ধার হয়েছে।

তাৎক্ষণিকভাবে আনুষ্ঠানিকভাবে কর্তৃপক্ষের কোনও বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এর আগে রোববার সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জের মদনগঞ্জ এলাকায় নির্মাণাধীন তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতুর সামনে কার্গোর ধাক্কায় ডুবে যায় লঞ্চটি।

নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ্ আরেফিন বলেন, বিআইডব্লিউটিএ টার্মিনাল থেকে ছেড়ে যাওয়া লঞ্চটিকে শহরের কয়লাঘাট এলাকায় পেছন থেকে একটি কার্গো জাহাজ এসে ধাক্কা দিলে ডুবে যায়।

এ ঘটনায় জেলা প্রশাসন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট খাদিজা তাহেরী ববিকে প্রধান করে সাত সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। কমিটিকে পাঁচ কার্য দিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

www.bbcsangbad24.com