এপ্রিল,০৬,২০২১

টঙ্গিবাড়ী (মুন্সিগঞ্জ) প্রতিনিধি: 

মুন্সিগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী উপজেলার দোরাবর্তি গ্রামে সন্ত্রাসী দিয়ে জোর করে পরের জমি দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সেই সাথে ওই জমি দখল করতে গিয়ে সরকারী রাস্তার পাশের আম গাছ নির্বিচারে কর্তণ করা হচ্ছে।

সরেজমিনে সোমবার বিকালে গিয়ে দেখাযায় উপজেলার দোরাবতী বটতলা হতে আড়িয়ল রাস্তার সিকিম আলি উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে রাস্তার পূর্ব পাশে সরকারী রাস্তায় রোপন করা আম গাছে কেটে দেয়াল নির্মাণ করছে শ্রমিকরা। নির্মাণ শ্রমিকরা জানান, উপজেলার দোরাবর্তী গ্রামের মৃত কুদ্দুস সেখের ছেলে আজিজুল হক সেখ এই দেয়াল নির্মাণ করছেন। নির্মাণ কাজের পাশেই ১০/১২ জন যুবক বসে তাস খেলছিলেন।

স্থাণীয়রা জানান, তাস খেলতে থাকা লোকজনগুলো আজিজুল সেখের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী। ওই জমির এক অংশের মালিক দোরাবর্তী গ্রামের সিরাজ মোল্লা জানান, ওই জমিটি ২টি দাগে মোট ৫২ শতাংশ । যা আমার বাবা ও দুই চাচা মালিক। আমার এক চাচা মৃত আফজাল হোসেন এর ছেলেরা ওই জমিটি ৩ ভাগের এক ভাগ মালিক। তারা জমিটি আজিজুল হক সেখের কাছে বিক্রি করছে। কিন্তু সে আমাদের জমিসহ পুরো ৫২ শতাংশ জমি দখল করে জোর করে বাউন্ডারী নির্মাণ করছে। আমি টঙ্গিবাড়ী থানা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক হাফিজ আল আসাদ বারেকসহ অনেককে বিষয়টি জানাইছি। আজিজুল আমাকে কোন পাত্তাই দিচ্ছেনা। সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে আমার জমিতে ইট বালু দিয়ে বাউন্ডারী নির্মাণ করছে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত আজিজুল সেখ জানান, ওই জমি আমি সিরাজ মোল্লার আপন চাচতো ভাই থেকে কিনছি। ৫৪ শতাংশ কিনছি কিন্তু লিখা দিছে ৩৬ শতাংশ। বাকিটা পরে লেইখা দিবো বলছে। আমি কিনার পর ওই জমি ৩০ লাখ টাকা দিয়ে ভরাট করছি। সিরাজ মোল্লারা আমার সাথে যোগাযোগ করছে আমি বলছি এই জমি আপনার নিলে আমার ভরাটের টাকা দিয়ে দেন। সন্ত্রাসী দিয়ে জমি দখলের ব্যপারে জানতে চাইলে সে বলে আমি ওই এলাকার পুলিশ কমিটির সভাপতি। কেউ যদি জুয়া খেলে তাদের আপনি ধরে নিয়ে আসেন। এরা সন্ত্রাসী কিনা আমি জানিনা তাদের চিনিওনা। তারা সন্ত্রাসী হলে জুয়া খেললে ধরে নিয়ে আসেন আমার কোন আপত্তি নাই। আমি ঢাকা থাকি আমার সমন্ধে আপনি আগে জানেন।

রাস্তার গাছ কাটার বিষয়ে সে জানায়,গাছনা আমি ডাল কাটছি। আমি এগুলো লাগাইছি সরকার লাগায় নাই। আমি কাটছি আবার লাগাই দিমু।

এ ব্যাপারে টঙ্গিবাড়ী উপজেলা বন কর্মকর্তা হুমায়ূন কবির জানান, রাস্তার পাশের সরকারী গাছ কর্তণ করলে অবশ্যই খোজঁ নিয়ে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

www.bbcsangbad24.com