এপ্রিল ০৬, ২০২১,

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যায় যাত্রীবাহী লঞ্চডুবির ঘটনায় আরও ৫ জনের লাশ নদীতে ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। লঞ্চের ভেতরই বেশির ভাগ লাশ মিলেছে।

মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) সকালে কয়লাঘাট এলাকা থেকে এসব মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ নিয়ে মোট ৩৪ জনের লাশ উদ্ধার হলো।

এর আগে গতকাল পর্যন্ত ২৯ জনের লাশ উদ্ধার করে স্বজনের কাছে হস্তান্তর করা হয়। সরকারের পক্ষ থেকে নিহতদের পরিবারকে ২৫ হাজার টাকা করে প্রদান করা হয়েছে।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাহিদা বারিক গণমাধ্যমকে জানান, সোমবার রাত থেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত ঘটনাস্থলে ভেসে ওঠা পাঁচজনের লাশ পাওয়া গেছে।

ইউএনও নাহিদা বলেন, সোমবার রাত থেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত পাঁচজনের লাশ ঘটনাস্থলে ভেসে উঠলে উদ্ধার করা হয়। স্বজনরা নিখোঁজদের যে তালিকা দিয়েছেন সেই অনুযায়ী আর দুইজন নিখোঁজ রয়েছেন। নাম জানা যায়নি এমন কেউও নিখোঁজ থাকতে পারে এখনও। তাদের সন্ধানে কাজ করছেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।

এদিকে, লঞ্চ ডুবির এ ঘটনায় নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট খাদিজা তাহেরী ববিকে প্রধান করে সাত সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। তদন্ত কমিটিকে আগামী পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, রোববার সন্ধ্যার দিকে নারায়ণগঞ্জ শহরের বিআইডব্লিউটিএ টার্মিনাল থেকে ছেড়ে যাওয়া যাত্রীবাহী লঞ্চ ‘এমভি সাবিত আল হাসান’ কয়লাঘাট এলাকায় কার্গো জাহাজের ধাক্কায় ডুবে যায়। লঞ্চের অনেকে সাঁতরে তীরে উঠতে পারলেও নিখোঁজ হন বেশির ভাগ যাত্রী। পরে উদ্ধার হওয়া লঞ্চের ভেতরই বেশির ভাগ লাশ পাওয়া গেছে।

www.bbcsangbad24.com