এপ্রিল,২১,২০২১

ফারহানা আক্তার,জয়পুরহাট প্রতিনিধি: 

জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার বাগজানায় বালুমহলে চাঁদা চাওয়াকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস লিপু, বাগজানা ইউনিয়ন কৃষকলীগের আহবায়ক রাসেল, বাগজানা ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক নিশিসহ আরো ৬/৭ জন গুরতর আহত হন। এঘটনায় সরকারি ইজারা প্রাপ্ত বালু ব্যবসায়ী আবু সাঈদ রনি বাদি হয়ে মঙ্গলবার রাতে পাঁচবিবি থানায় একটি চাঁদাবাজির মামলা করেন, যাহার নং-২৩৬০(৩)/১, তাং-২১-০৪-২০২১। থানায় এজাহার সূত্রে জানাগেছে, দীর্ঘদিন যাবৎ বাগজানা ইউপির কুটহারা ছোট যমুনা নদীর বালুঘাট সরকারি ভাবে রনি নামে স্থানীয় এক বালু ব্যাবসায়ী ইজারা নিয়ে বালু উত্তোলন করে আসছে।

মঙ্গলবার দুপুরে স্থানীয় প্রভাবশালী সাধন মহন্তের নেতৃত্বে আবু মুস্তারি (৩৪), সবুজ হোসেন (৩৫), শাকিল হোসেন (৩২) ও সাবির হোসেনসহ আরো ১৩/১৪ জন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে রনির বালুঘাটে গিয়ে ৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করেন। এসময় চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে বালুরঘাট বন্ধ করে দেয় এবং রনির বড় ভাইকে বেধরক মারপিট করে জখম করে। খবর পেয়ে উপজেলা যুবলীগের নেতাকর্মীরা তাদের উদ্ধার করতে এগিয়ে গেলে তাদেরও মারধর করে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় প্রতিপক্ষ। পাঁচবিবি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) পলাশ চন্দ্র দেব জানান, এঘটনায় থানায় একটি চাঁদাবাজির মামলা হয়েছে এবং এঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

www.bbcsangbad24.com