এপ্রিল,২১,২০২১

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি:

বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ৮ম শ্রেণির এক ছাত্রীর অন্তরঙ্গ ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি প্রদানে গত ১৮ এপ্রিল রবিবার মেয়ের বাবা বাদি হয়ে সিরাজদিখান থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগের কয়েক ঘন্টার মধ‌্যই আসামি সাইদুল ইসলামকে গ্রেফতার করে সিরাজদিখান থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধনী ২০০৩ তৎসহ ৮(১) ২০১২ সালের পর্ণোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইন, অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়েকে ফুসলাইয়া নিয়া নগ্ন স্থির চিত্র ধারণ করার অপরাধে মামলা রুজু করা হয়।

সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. বোরহান উদ্দিন
আমার সংবাদকে জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা আসামি গ্রেফতার করেছি এবং তার কাছ থেকে আলামতসহ মোবাইলটি জব্দ করেছি। আজ সকলে আসামিকে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।

আসামির মোবাইল ফোন থেকে ঘটনার আলামত উদ্ধার করেছি। আমরা পরবর্তি ব্যাবস্থার জন্য মোবাইলটি ডিবির কার্যালয়ে পাঠিয়ে দিব। অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়ের সাথে সম্পর্ক থাকলেই কেউ বাজে ছবি বা নগ্ন ছবি কোন ভাবেই কেউ তুলতে পারবে না। এই ধরনের কাজ যদি কেও করে তবে তার শাস্তি হবে।

উল্লেখ্য, উপজেলার মধ্যপাড়া ইউনিয়নের পূর্ব কাকালদী গ্রামের মো. এছাক আলীর ছেলে সাইদুল ইসলাম (৩২) একই ইউনিয়নের পশ্চিম কাকলদী গ্রামের সাইদুল শেখের কন্যা মালখানগর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণি পরুয়া ছাত্রীকে বিভিন্ন ভাবে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল এবং জোরপূর্বক ভাবে মোবাইল ফোনে কিছু অন্তরঙ্গ ছবি ধারণ করে।

এছাড়াও গত ১৫ এপ্রিল বেলা আড়াইটার দিকে বিবাহের প্রস্তাব দিলে ছাত্রীটি তাতে অসম্মতি জানালে সাইদুর ইসলাম তার মোবাইলে ধারণকৃত ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দিবে বলে হুমকি প্রদান করে।

www.bbcsangbad24.com