এপ্রিল ২৯, ২০২১,

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

দেশে করোনাকালীন সময়ে লকডাউনের কারণে অসহায় হয়ে পড়েছে কৃষক। মাঠে পাকা ধান থাকলেও অর্থের অভাবে কাটতে পারছে না তারা।

ঠিক তখনই কেন্দ্রীয় যুবলীগের সিদ্ধান্তে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রাসেল খন্দকারের নেতৃত্বে বড়ভিটা ইউনিয়নের চর ধনিরাম এলাকার কৃষক সুমন মিয়ার ২৮ শতাংশ জমির ধান কেটে ঘরে তুলে দিয়েছেন বড়ভিটা ইউনিয়ন যুবলীগ।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ধান কেটে বিনা পারিশ্রমিকে ওই কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দেন বড়ভিটা ইউনিয়ন যুবলীগ। ধান কেটে ঘরে তুলে দেয়ার জন্য যুবলীগকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানান কৃষক সুমন মিয়া।

এসময় কৃষক সুমন মিয়া জানান, করোনাকালীন সময়ে লকডাউনের কারণে আমাদের মত চরাঞ্চলের কৃষকরা অসহায় হয়ে পড়েছে। ধান কাটতে পারছিলাম না। বড়ভিটা ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রাসেল ভাইয়ের নেতৃত্বে আমার ২৮ শতাংশ ধান কেটে ঘরে তুলে দিলেন যুবলীগ। এজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ যুবলীগকে ধন্যবাদ জানাই।

বড়ভিটা ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রাসেল খন্দকার জানান, কেন্দ্রীয় যুবলীগের নির্দেশক্রমে আমরা অসহায় কৃষকদের ধান কেটে দিচ্ছি। আমাদের এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

বড়ভিটা যুবলীগের সহ-সভাপতি প্রতাপ চন্দ্র চক্রবর্তী জানান, বড়ভিটা যুবলীগ অতীতে অসহায় মানুষদের পাশে ছিল এখনও আছে ভবিষ্যতেও থাকবে।

www.bbcsangbad24.com