-মে,২৩,২০২১

ফারহানা আক্তার জয়পুরহাট প্রতিনিধি

জয়পুরহাট জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপার, জনাব মাছুম আহাম্মদ ভুঞা(পিপিএম)দিক নিদের্শনায় অফিসার ইনচার্জ, জয়পুরহাট থানা, জয়পুরহাট এর নেতৃত্বে এসআই সাব্বির আরাফাত জনি, এসআই বেলাল উদ্দিন, এসআই এরশাদ হোসেন, এসআই আব্দুল গাফ্ফার, এসআই গোলাম মোস্তফা, এসআই শ্রী পুলক সরকার, এএসআই আব্দুস সামাদ, এএসআই মেহেদী হাসান, এএসআই সুমন ইসলাম, এএসআই মোঃ মোক্তার আলম এবং কিলো-১, অফিসার এসআই আব্দুল মান্নান, স্পেশাল-১ অফিসার এসআই আনোয়ার হোসেনসহ প্রায় ৩০ জন অফিসার ফোর্সের সহায়তায় অদ্য ইং ২২/০৫/২০২১ তারিখ বেলা অনুমান ১১.৩০ ঘটিকায় জয়পুরহাট থানাধীন শহরের ব্যস্ততম নতুনহাট এলাকার রোজি, স্বামী-সাজাহান বিশ্বাস এবং হনুফা খাতুন (৩৫), স্বামী-খোকন মিয়াদ্বয়ের বাড়ীসহ আশেপাশে প্রায় ১০টি বাড়ীতে ০৩ গ্রুপে বিভক্ত হয়ে অভিযান পরিচালনা করা হয়। স্থানীয় বিভিন্ন নির্ভরযোগ্য সূত্রে ও গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায়, উল্লেখিত রোজি ও হনুফা খাতুনদ্বয়ের প্রত্যক্ষ মদদে ও তত্বাবধানে অপরাপর আসামী মালেকা খাতুন, আসলাম হোসেন, মুসা, টুম্পা খাতুন, বৈশাখী খাতুন, শ্রীমতী রীতা রানী, শিল্পি খাতুন, ইব্রাহীম হোসেন, মামুন, মোমেনা খাতুন, রোজিনাগংদের সহায়তায় পতিতালয় পরিচালনা করার উদ্দেশ্যে জয়পুরহাট জেলার বিভিন্ন থানা এলাকা ও অন্যান্য জেলা হতে টাকার প্রলোভন দেখিয়ে মেয়েদের সংগ্রহ করে পতিতাবৃত্তি ও যৌন নিপীড়নের কাজে লিপ্ত করে। উল্লেখিত ঘটনা সংক্রান্তে জয়পুরহাট সদর থানায় ২০১২ সালের মানব পাচার ও প্রতিরোধ দমন আইনে একটি নিয়মিত মামলা রুজু হয়। আসামীদের বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

www.bbcsangbad24.com