মে,৩০,২০২১

ফারহানা আক্তার,জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃ 

পাঁচবিবিতে অপরিকল্পিত ভাবে নদী খনন করায় শিমলতলী সেতু হুমকির মুখে পড়েছে। যে কোন সময় সেতুটির পশ্চিম অংশে নদীর গর্ভে ধ্বসে যাওয়ার আশংকা রয়েছে।

জানা যায়, কয়েক দিনের প্রবল বর্ষণে গতকাল শনিবার রাতে পাঁচবিবির ছোট যমুনা নদীতে পানির ঢল নামায় খননকৃত নদীর শিমলতলী সেতুর পশ্চিম পাড়ে ভাঙ্গন শুরু হয়েছে। ভাঙ্গনের ফলে সেতুসহ সংযোগ সড়ক হুমকীর মখে পড়েছে। ভাঙ্গনে নদী তীরবর্তী বিদ্যুতের পোল নদীর গর্ভে গেলে পশ্চিম পাড়ের গ্রাম গুলোতে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। ফলে এলাকার লোকজনের মাঝে আতংক দেখা দিলে রাতেই ঘটনাস্থলে উপজেলা চেয়ারম্যান মনিরুল শহিদ মুন্না, নির্বাহী অফিসার মোঃ রবমান হোসেন, পাঁচবিবি এলজিইডির প্রকৌশলী কাইয়ুম হোসেন, অফিসার ইনচার্জ পলাশ কুমার দেব যান। আজ শনিবার সকালে এলাকার লোকজন সেতু রক্ষার দাবীতে সেতু অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে থাকে।

পরে খবর পেয়ে জেলা প্রশাসক মোঃ শরিফুল ইসলাম, পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমান, জেলা এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আলাউদ্দিন হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। জেলা প্রশাসক লোকজনকে শান্ত থাকতে বলেন এবং দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলীকে জানান। পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমান বলেন, সেতু রক্ষার্থে দু’একদিনের মধ্যেই বালির বস্তা ও সিসি ব্লক ফেলার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে।

এলাকার মুক্তিযোদ্ধা সানোয়ার হোসেন, চিনিকলের সাবেক শ্রমিক নেতা বাবুল করিমসহ আরো অনেকে জানান, অপরিকল্পিত ভাবে নদী খনন ও সেতু সংলগ্ন এলাকা থেকে বালু উত্তোলন করায় বর্তমানে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। বালু উত্তোলন বন্ধে ইতিপূর্বে কয়েক বার প্রশাসনের কাছে লিখিত ভাবে আবেদন করলেও কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। পানি উন্নয়ন বোর্ডের উদ্যোগে গত ১৬ ফেব্রুয়ারী উপজেলার চেঁচড়া সীমান্ত থেকে জয়পুরহাট সদর উপজেলার দাদরা পর্যন্ত ২৩ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য ৩০ মিটার প্রস্থ ও ২মিটার গভীরতায় নদীর খনন শুরু হয়েছে।

www.bbcsangbad24.com