জুন,০২,২০২১

মোঃ আশিকুর রহমান রণি,ব্রাহ্মণবাড়িয়া: 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বিশ্বরোড খাটিহাতা থানার এসআই কাঞ্চনের বিরুদ্ধে লক্ষ টাকা মাসোয়ারা বাণিজ্যের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সরেজমিনে তদন্ত করে বেরিয়ে আসে তার সমস্ত অবৈধ বাণিজ্যের সকল খতিয়ান। নিষিদ্ধ যান ৬ চাকার ট্রাক্টরের কাছ থেকে প্রতি ট্রাক্টর ২ হাজার টাকা করে আদায়, নসিমন (থ্রি হুইলার যা বটবটি নামে খ্যাত) প্রতি ৩ হাজার টাকা, নাম্বার বিহীন প্রতি সিএনজি থেকে ১ হাজার টাকা উত্তোলন করার অভিযোগ রয়েছে।

তার বিরুদ্ধে আরো গুরুতর অভিযোগ রয়েছে থানা কর্তৃকধৃত বিভিন্ন গাড়ী থানা এরিয়ায় (ডাম্পিং) রাখা গাড়ীর বিভিন্ন মূল্যবান যন্ত্রাংশ খুলে বিক্রি করে।

আরো জানা গেছে, আশুগঞ্জ বিএনপি’র শীর্ষ নেতা সেলিম পারভেজ ও তার ভাই সোহেলকে দিয়ে এসব টাকা উত্তোলন করে থাকে। কারণ ছাড়াই মহাসড়ক থেকে চলমান গাড়ীর ধৃত করে উচ্চ মূল্যের ঘুষ আদায় করে ছাড়ার অভিযোগও রয়েছে।

খোজ নিয়ে জানা যায়, গত ৮ মে ২০২১ইং তারিখে মহাসড়কে চলমান জনৈক আলাউদ্দিনের একটি ৬ চাকার নিষিদ্ধ ট্রাক্টর এসআই আলাউদ্দিন কর্তৃক আটক করা হয়। পরবর্তীতে সেই ট্রাক্টর পরের দিন সেই বিএনপি’র নেতা সেলিম পারভেজের কথায় তার ভাই সোহেল’র মধ্যস্থতায় ৩ হাজার টাকা নিয়ে গাড়িটি ছেড়ে দেয়া হয়।

এ ব্যাপারে খাটিহাতা থানার অভিযুক্ত এসআই কাঞ্চনের সাথে কথা বললে তিনি জানান, গাড়ী ছাড়ার ব্যাপারে আমি কিছু জানি না। ওসি স্যারের নির্দেশে এই ট্রাক্টরটি ছাড়া হয়।

এব্যাপারে হাইওয়ে থানার নবাগত ওসি মোঃ শাহজালালের সাথে কথা বললে তিনি বলেন জনৈক সেলিম পারভেজের কথায় এই ট্রাক্টরটি ছাড়া হয়। তবে অর্থ বাণিজ্যের ব্যাপারে আমি কিছু জানি না। যদি অর্থ বাণিজ্যের কোন অভিযোগ পাই তাহলে এই বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

www.bbcsangbad24.com