জুন,০৭,২০২১
শাজাহান খান, শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ 

শ্রীনগরে অবৈধ ঢালাইকারখানার বিষাক্ত ধোঁয়ায় এলাকাবাসী স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পরেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ে সংলগ্ন উপজেলার ষোলঘরের উত্তর উমপাড়ায় স্বপন মেটাল নামে এ ঢালাই কারখানাটি গড়ে তুলেছেন স্বপন নামের ঢাকার এক ব্যবসায়ী। সরেজমিনে দেখাগেছে, ওই ঢালাই কারখনাটিতে ছাড়পত্রবিহীন কারখানায় প্রায় ৮/১০ জন শ্রমিক মাস্ক ছাড়া ময়লা জামা কাপড় পড়ে চুল্লিতে বিভিন্ন ধাতব পুড়িয়ে শিশার প্লেট তৈরী করছে। আর চুল্লি দিয়ে অনবরত বিষাক্ত কালো ধোয়া নির্গত হওয়ায় ধুলা ময়লায় পরিবেশ যেমন দূষিত হচ্ছে। অন্যদিকে কারখানায় গভির রাত পর্যন্ত ধাতবে হ্যামারের বাড়ির শব্দে হচ্ছে শব্দ দূষণও। স্থানীয় এলাকাবাসী জানায়, দিন রাত ২৪ ঘন্টাই কারখানায় কাজ চলে। আর টুং টাং শব্দে ও দুর্গন্ধযুক্ত বিষাক্ত ধোঁয়ার কারণে রাতে তাদের ঘুমাতে অনেক কষ্ট হয়। বিশেষ করে শিশু বাচ্চাদের নিয়ে তারা বেশী স্বাস্থ্য ঝুঁকির মধ্যে রয়েছেন। কারখানার ধোঁয়ায় চারিপাশ অন্ধকার হয়ে পরে। এতে করে তাদের শ্বাস কষ্টে থাকতে হচ্ছে। বিশেষ করে এ ক্ষেত্রে দুর্বল হার্টের মানুষ ও শিশুরা পরে চরম সমস্যায়। যে কোন সময় ঘটতে পারে তাদের কঠিন বিপদ। এ ছাড়া বিভিন্ন স্কুল,কলেজ, মাদরাসার শিক্ষার্থীরা ঢালাই কারখানার পাশদিয়ে যাতায়াত করে। থাকে। এতে করে শব্দে কান ও ব্রেইনের মারাত্বক ক্ষতি করলেও দেখার বা শোনার যেন কেউ নেই। কারখানা সংলগ্ন আবাসিক বাড়ির নাসরিন বেগম অভিযোগ করে বলেন, আশপাশের কেউ অসুস্ত কিংবা কারও মৃত হলেও প্রচন্ড শব্দের কারনে তারা কিছুই শুনতে পাননা। কারখানাটির মালিক মো. স্বপন মিয়ার কাছে এবিষয়ে জানতে একাধিকবার ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি। এব্যাপারে শ্রীনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রণব কুমার ঘোষকে অবগত করা হলে তিনি বলেন, কারখানাটির বিষয়ে আমি অবগত নই। খোজ নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহন নেওয়া হবে। এ বিষয়ে প্রশাসনের দ্রæত হস্তক্ষেপ চায় সকল বয়সের সচেতন এলাকাবাসী।

www.bbcsangbad24.com