জুন,২৮,২০২১

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি:

মুন্সিগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী উপজেলার নোয়াদ্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কক্ষ থেকে সোমবার বেলা ২টার দিকে দপ্তরী স্বপন সরকার (৪৫) এর মৃত দেহ উদ্ধার করে টঙ্গীবাড়ী থানা পুলিশ।

সে মুন্সিগঞ্জ সদর থানার সুধার চর গ্রামের পেমানন্দ সরকার এর ছেলে। স্বপন সরকার রাতে বিদ্যালয়ে একটি কক্ষে থাকতেন। মৃত স্বপন সরকার এর স্ত্রী একজন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকা। মৃত স্বপন সরকার এর সামি ও সেওয়াগ নামের দুই ছেলে আছে।

এ বিষয়ে নোয়াদ্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলম জানান, আমি প্রতি দিনের ন্যায় আজও বিদ্যালয়ে আসি। প্রতিদিন দপ্তরীই তালা খোলে আজ দেখি তালা মারা। পরে আমি তালা খুলে আমার রুমে প্রবেশ করি তার পর ওর রুমে গিয়ে দেখি ফ্যান চলতাছে ও শুয়ে আছে। তারপর তাকে ডাকাডাকি করলেও ও আর ওঠেনি পরে আমি বিদ্যালয়ের পাশের দোকানদারকে ডাক দিয়ে আনি ও পুলিশকে খবর দেয়া দেই ।

মৃত ওই ব্যাক্তির স্ত্রীর ভাই রিপন হালদার (৩৮) জানান, আমাদের ধারনা আমার বোনের স্বামী স্বপন সরকার ডায়াবেটিস এর রোগী ছিলেন হয়ত তার রক্তের সুগার নিল হয়ে গিয়েছিল অথবা তিনি স্ট্রোক করে মারা গিয়েছেন।

এ বিষয়ে টঙ্গীবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ হারুন অর রশিদ এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,

আমরা মৃত দেহ উদ্ধার করে থানায় এনেছি। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রেরন করবো। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে তদন্ত সাপেক্ষ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

www.bbcsangbad24.com