জুলাই ০৬, ২০২১,

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সারাদেশে চলছে কঠোর লকডাউন। গত ১ জুলাই থেকে লকডাউন শুরু হয়েছে। কঠোর লকডাউনের ষষ্ঠদিনে আজ রাজধানীর সড়কে মানুষ ও যান চলাচল বেড়েছে।

মঙ্গলবার (৬ জুলাই) সকাল থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে তৈরি হয়েছে যানজট। সড়কে রিকশা, মাইক্রোবাস, প্রাইভেটকার, মিনি ট্রাক ভ্যানগাড়ির দীর্ঘ সারি দেখা গেছে।

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী, সায়েদাবাদ, কমলাপুর, মৌচাক, মালিবাগ, মগবাজার, বাংলামোটর, কাওরানবাজার, ফার্মগেট, আগারগাঁও, মোহাম্মদপুর, ধানমন্ডি, সায়েন্স ল্যাবরেটরি, এলিফ্যান্ট রোড, শাহবাগ, গুলিস্তান এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, আগের দিনগুলোর তুলনায় মানুষ ও যানবাহনের সংখ্যা বেড়েছে। এসব এলাকার মোড়গুলোতে তৈরী হচ্ছে যানজট।

রাজধানীর প্রায় প্রতিটি সিগন্যালেই দীর্ঘক্ষণ যানবাহন দাঁড়িয়ে থাকতে হচ্ছে। গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে মোড়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চেকপোস্ট থাকলে কোনটা কার্যকর কোনটা আবার অকার্যকর। সে কারণে অনেক সড়কে অবাধে যাতায়াত করার সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।

এছাড়া কাঁচাবাজার, মাছের দোকানে গায়ে গা ঘেঁষে দাঁড়িয়ে দরদাম চলছে। গলির ভেতরে খাবার হোটেলে নাস্তা কেনার জন্য জটলা করছেন অনেকে।

পুলিশ জানায়, শিল্প কারখানা, ব্যাংক-বীমাসহ বিভিন্ন অফিস খোলা থাকায় অনেককেই বের হতে হচ্ছে। এর বাইরে মানুষ নানা অজুহাতে ঘর থেকে বের হচ্ছে। যারা বিনা প্রয়োজনে রাস্তায় বের হচ্ছেন তাদেরকে আটক করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, করোনা নিয়ন্ত্রণে গত ১ জুলাই থেকে এক সপ্তাহের কঠোর লকডাউন শুরু হয়েছে সারাদেশে। লকডাউনের চুতর্থ দিন রোববার চলমান কঠোর লকডাউন আরও এক সপ্তাহ বাড়ানোর সুপারিশ করে কোভিড-১৯ বিষয়ক জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি। আর ৫ জুলাই লকডাউন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত আসে সরকারের পক্ষ থেকে।

www.bbcsangbad24.com