আগস্ট,০৩,২০২১

”বিচিত্র কুমার”

আমি একগুচ্ছ কদম ফুল নিয়ে দাঁড়িয়ে
শুধু তোমার প্রতীক্ষায় আর প্রতীক্ষায়
এত প্রতীক্ষা কেন কবি?
একটা স্বপ্নের পৃথিবী সাজাবো বলে
যুগযুগ ধরে কত প্রতীক্ষার প্রহর গুনেছি
সেখানে তুমি আর আমি হারাব স্বপ্নের দেশে?
এটা কী সম্ভব কবি?
কেন নয় বলো?
আমি কী বেশি কিছু চেয়েছি, না তবে?
আচ্ছা আমি যদি আকাশ হই তুমি বৃষ্টি হবে
দুজনে মেঘের ভেলায় চড়ে হারিয়ে যাব দূর বিদেশে,
সুখতারাদের মতো রাতে মিটিমিটি জ্বলব আমরা দুজন
হাতে রেখে হাত গল্প করব ছন্দ সুরে রঙধনুর দেশে।
এত স্বপ্ন হি হি হি
এমন করে হেসো না সুখ পাখি
আমি যে দম বন্ধ হয়ে মরে যাব
তাহলে কী চাও তুমি?
তোমাকে,একটা নতুন স্বপ্নকে, একটা নতুন আশাকে
একটা সত্যিকারের ভালোবাসাকে।
তুমি একটা পাগল কবি
তোমার জন্যে যদি পাগল হতে পারতাম
তাহলে একটা স্বপ্নের পৃথিবী গড়তে পারতাম।
তাহলে আমি কী তোমার সুখ পাখি নই?
হ্যাঁ,কিন্তু
কিন্তু আবার কী কবি?
আমিও তো রক্তে মাংসে গড়া মানুষ
আমারও তো একটা মন আছে,একটা স্বপ্ন আছে
বুকের মধ্যে জমা ভালোবাসা আছে।
তুমি তো কখনো আগে বলোনি পাখি
তুমি আমাকে এতটা ভালোবাসো
সব কথা কী বলতে হয় মুখে কবি?
কিছু কথা বুঝে নিতে হয়।

www.bbcsangbad24.com