আগস্ট ০৮, ২০২১,

নিজস্ব প্রতিবেদক

পরীমনি, পিয়াসা, মৌ, রাজদের অপকর্মের সঙ্গে জড়িত নানা পেশার অনেকের নামই পাওয়া গেছে। সেগুলো যাচাই-বাছাই করে সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন সিআইডি অতিরিক্ত ডিআইজি শেখ ওমর ফারুক।

রোববার (৮ আগস্ট) দুপুরে রাজধানীর মালিবাগে সিআইডি প্রধান কার্যালয়ে তিনি এ তথ্য জানিয়েছেন।

অতিরিক্ত ডিআইজি বলেন, পরীমনির বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের সঙ্গে গণমাধ্যমে অনেক ব্যাংকের এমডি-চেয়ারম্যানের নাম এসেছে। কিন্তু তারা আদৌ জড়িত কি-না, তা পুঙ্খানুঙ্খুভাবে তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্ত শেষে এ বিষয়ে বিস্তারিত বলা সম্ভব হবে।

শেখ ওমর ফারুক বলেন, পরীমনিকাণ্ডে অনেক মানুষের সঙ্গে সম্পৃক্ততার কথা আমরা জানতে পারছি। অনেকের নামও পাচ্ছি। ব্যাংকের এমডি-চেয়ারম্যান নাম অনেক গণমাধ্যমে আসছে। কিন্তু এ নামগুলো আমাদের পক্ষ থেকে বলা হয়নি।

তিনি আরও বলেন, যাদের সংশ্লিষ্টতা নেই, তারা যেন হয়রানির শিকার না হয় সেজন্য আপাতত ব্যাংকের এমডি-চেয়ারম্যানদের নাম বলতে চাচ্ছি না। তদন্ত শেষে বলা যাবে।

অতিরিক্ত ডিআইজি শেখ ওমর ফারুক বলেন, আমরা গতকাল একসঙ্গে ছয়জন মূল আসামির বাসায় তল্লাশি করেছি। কিছু আলামত ও ডিভাইস উদ্ধার করেছি। ল্যাপটপ, ডেস্কটপ, পাসপোর্ট, মোবাইল, হার্ডডিস্ক এবং ফেরারি গাড়ি জব্দ করেছি। তদন্তের অংশ হিসেবে এই তল্লাশি অভিযান।