আগস্ট,০১,২০২১

ফারহানা আক্তার, জয়পুরহাটঃ

জয়পুরহাটজেলার ভাদশা ইউনিয়নের বড় মাঝিপাড়া গ্রামের শ্রী নৃপেন্দ্রনাথ হালদার (নিপেন মাষ্টার) এর বসতবাড়ীতে গত ৫ জুলাই অানুমানিক রাত ১ ঘটিকার সময় ৯ থেকে ১০ জন মুখোশধারী ডাকাত দল বিভিন্ন ধরণের অস্ত্র-শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে বাড়ীর দরজা ভেঙ্গে স্ত্রী সন্তানসহ সকলের হাত পা বেঁধে এক ঘরে জিম্মি করে টাকা পয়সা ও স্বর্ণালংকার বের করে দিতে বলে।

এ সময়ে বাড়ীতে কোন টাকা পয়সা ও স্বর্ণালংকার নাই বললে ডাকাত দল তাদেরকে এলোপাথাড়ীভাবে মারপিট করে প্রায় মৃত অবস্থায় ফেলে রেখে ঘরে থাকা স্টীলের তালা ভেঙ্গে বাক্সে থাকা ২০-২২ টি কাঁসার প্লেট/বাটি, স্বর্ণের তিনটি নাকফুল, এমিটেশনের তৈরি চারটি বালা ও বাটন মোবাইল ফোন লুট করে নিপেন মাষ্টার ও তার স্ত্রী-সন্তানদের একঘরে বন্দি করে বাহির থেকে আটকে দিয়ে চলে যায়।

পরবর্তিতে নিপেন মাষ্টারের স্ত্রী গীতা রানী হালদার বাদী হয়ে জয়পুরহাট থানায় একটি ডাকাতি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং-১৭, তারিখ-০৮.০৭.২০২১ইং।

মামলা দায়েরের পর বিষয়টি জয়পুরহাট মাছুম আহাম্মদ ভূঞা,পিপিএম-সেবা এর নির্দেশক্রমে জয়পুরহাট জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাহেদ আল মামুন তদন্তকারী কর্মকর্তাসহ ডিবির একটি চৌকস আভিযানিক দল তথ্য প্রযুক্তির সাহায্যে মামলা সংক্রান্তে পূর্বে ৪ জন ডাকাত দলের সদস্যকে গ্রেফতার করে বিজ্ঞ আদালতে সোর্পদ করেন।

উক্ত ডাকাত দলের সদস্যদের কাছ থেকে লুণ্ঠিত মালামালের মধ্যে ৩ টি কাসার প্লেট ৩ টি স্বর্ণের নাক ফুল ও এমিটেশনের তৈরি বালা উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃত ডাকাতদের বিজ্ঞ আদালতে প্রদত্ত ফৌঃকাঃবিঃ ১৬৪ ধারা মতে দেয়া স্বীকারোক্তীমূলক জবানবন্দি এবং তথ্যের ভিত্তিতে পার্শবর্তি নওগাঁ জেলার ধামুইরহাট থানাধীন দিলালপুর এলাকার ওসমানের ছেলে ডাকাতির মূল হোতা কুখ্যাত ডাকাত ছানোয়ার হোসেন লসু (৪৫) কে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত ডাকাত দলের সর্দার কুখ্যাত ডাকাত ছনোয়ারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় ডাকাতি, অস্ত্র, মাদকসহ ১৭টি মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে এবং সে আন্তঃ জেলা ডাকাত দলের একজন সক্রিয় সদস্য ও মূল হোতা।

www.bbcsangbad24.com