সেপ্টেম্বর,০৪,২০২১

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ 

ঢাকা দোহারের শাইনপুকুর থেকে মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার বাঘড়া এলাকায় আসার পথে মাহমুদা বেগম (৪৪) নামের এক গৃহবধুকে এসিডে ঝলসে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার রাত ৭টার দিকে শ্রীনগর উপজেলার বাঘড়া এলাকার কাদির মেম্বারের বাড়ির সামনে এঘটনা ঘটে।

গৃহবধু মাহমাদু বেগমকে উদ্ধার করে শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হলে তাকে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে প্রেরন করা হয়।

মাহমুদা বেগমের পারিবারিক সুত্র জানায়, শাইনপুকুর এলাকার একটি মসজিদের ফ্যান ছাড়াকে কেন্দ্র করে মাহমুদা বেগমের ছেলে রফিকুল ইসলামের সাথে একই এলাকার রায়হান ওরফে মজিদ,আলমগীর,কালু,রণি সহ বেশ কয়েকজনের সাথে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। শুক্রবার এঘটনা নিয়ে রফিকুলের প্রতিপক্ষ মারমুখী হয়ে উঠে। ভয়ে মাহমুদা বেগম তার চাচাতো বোন নুরুন নাহারকে সাথে করে অটোরিক্সা নিয়ে বাঘড়া এলাকার অত্নীয়ের বাড়ির দিকে রওনা দেয়। এসময় প্রতিপক্ষের লোকজন দুটি মোটরসাইকেল নিয়ে তাদের পিছু নেয়। অটোরিক্সাটি বাঘড়া এলাকার কাদির মেম্বারের বাড়িরে সামনে পৌছলে প্রতিপক্ষের লোকজন মাহমুদা বেগমকে এসিড ছুড়ে মারে। এতে মাহমুদা বেগমের পিঠের বেশ কিছু অংশ ঝলসে যায়। তাৎক্ষনিক ভাবে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে।

শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ মাহিয়া জানান, এসিডে ঝলসে যাওয়ায় রোগীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে প্রেরণ করা হয়েছে।

শ্রীনগর থানার ওসি(তদন্ত) মোঃ কামরুজ্জামান জানান, বিষয়টি সম্পর্কে পুলিশ গুরত্ব সহকারে খোঁজ নিচ্ছে।

www.bbcsangbad24.com