সেপ্টেম্বর,১১,২০২১

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি: 

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলা থেকে আন্ত: জেলা ডাকাত দলের সক্রিয় ৫ সদস্যকে দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্রসহ গ্রেফতার করেছে গজারিয়ার থানা পুলিশ। এ সময় ডাকাত দলের ব্যবহৃত একটি ট্রাক ও একটি পিকআপ জব্দ করা হয়েছে। বিষয়টি শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ‌্যার দিকে গজারিয়া থানায় সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে নিশ্চিত করেছেন গজারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো: রইছ উদ্দিন।

প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানান, গজারিয়া উপজেলার টেঙ্গারচর ইউনিয়নের উত্তর শাহপুর এলাকায় ২ টি গাড়ি থেকে ৮-১০ জনের সংঘবদ্ধ ডাকাত দল ডাকাতি করার উদ্দেশ্যে সমবেত হয়েছে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উত্তর শাহপুরের রবিউল বেপারীর বাড়ির দক্ষিণ পাশে পাকা রাস্তার উপর পৌঁছানো মাত্র পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ট্রাক ও পিকআপ ফেলে ৮-১০ জন ডাকাত রাস্তার পাশে থাকা খালের পানিতে ঝাঁপ দিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। দায়িত্বরত পুলিশও পানিতে ঝাঁপ দিয়ে মো. আসলাম (৩৮) পিতা মো. আলী হোসেন, ইসমাইল (৫০) পিতা মৃত- মহি উদ্দিন, মো. সুমন (৩৪) পিতা আলী আকবর সর্ব সাং বন্দর নারায়নগঞ্জ, রাসেল হাসান (১৮) পিতা মকবুল হোসেন ফুলতলা খুলনা, মেহেদী হাসান (১৮) পিতা মৃত আ: জব্বার খড়ার চর, ধামরাই ঢাকা আটক করে। অজ্ঞাত আরো ৫/৬ জন ডাকাত পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

ডাকাতির প্রস্তুতির কাজে ব্যবহৃত ১টি হলুদ, নীল ও লাল রঙয়ের তিন টনি ট্রাক, ১টি লোহার তৈরী ২৪ ইঞ্চি কালো হাতল যুক্ত ভোল্ট কাটার, ২টি রামদা, ধারালো দা ২ টি, ৩৮ ইঞ্চি এসএস পাইপ, ১টি প্রিকাপ ঢাকা মেট্রো ন ১৩-৮৬৮৩, ১টি হকিস্টিক, ছোট কাটার, প্লাস, টর্চ লাইট, স্টীলের তৈরী টর্চ লাইট জব্দ করা হয়েছে। এসআই নিরস্ত্র মো. কামাল উদ্দিন মিয়া বাদী হয়ে এজহার দায়ের করলে গজারিয়া থানায় ধারা ৩৯৯/৪০২ পেনাল কোড রুজু করে মামলা করা হয়েছে। মামলা নং ০৮।

এবিষয়ে গজারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. রইছ উদ্দিন জানান, আসামীদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ডাকাতির প্রস্তুতির বিষয়টি স্বীকার করেছে। ধৃত আসামীরা সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য। তারা রাজধানী ঢাকা, নারায়নগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, গাজীপুর ও কুমিল্লা জেলার বিভিন্ন স্থানে ডাকাতি সংঘঠিত করেছে জানিয়েছে। ধৃত আসামীদের বিরুদ্ধে নারায়নগঞ্জসহ বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।

www.bbcsangbad24.com