সেপ্টেম্বর ২০, ২০২১,

কক্সবাজার প্রতিনিধি

কক্সবাজারের মহেশখালী ও কুতুবদিয়ায় নির্বাচনী সহিংসতায় আবুল কালাম (৩২) ও আবদুল আলিম (৩০) নামে দু’জন নিহত হয়েছেন।

সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) মহেশখালীর কুতুবজোম ইউনিয়ন পরিষদের ভোট চলাকালে আওয়ামী লীগ সমর্থিত ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনায় মারা যান স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থক আবুল কালাম (৩২)। ওই ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন আরও অন্তত ১০ জন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মহেশখালী থানার (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুল হাই ও কুতুবদিয়া (ওসি) ওমর হায়দার।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সংঘর্ষের কারণে দুই কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়। মহেশখালীর কুতুবজোম ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত নৌকার প্রার্থী শেখ কামাল এবং তার প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী চশমা প্রতীকের প্রার্থী মোশাররফ হোসেন খোকনের সমর্থকদের মধ্যে ভোট জালিয়তি নিয়ে বাকবিতণ্ডা হয়। পরে উভয় পক্ষের মধ্যে ব্যাপক গুলি বিনিময় হয়। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই আবুল কালাম নিহত হন।

অন্যদিকে, কুতুবদিয়া বড়ঘোপ ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের পিলটকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর গুলিতে আবদুল আলিম (৩০) নামে একজন নিহত হয়েছেন বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।

আবদুল আলিম বড়ঘোপ ইউনিয়নের গোলদারপাড়া এলাকার মোহাম্মদ হোসেনের ছেলে ও ৭ নং ওয়ার্ড় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কিছু লোক ভোটকেন্দ্রে বিশৃঙ্খল পরিবেশ সৃষ্টি করে ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের চেষ্টা করছিল। এতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর এক সদস্যের গুলিতে আবদুল হালিম আহত হন। তাকে উদ্ধার করে কুতুবদিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

কুতুবদিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.ওমর হায়দার সাংবাদিকদের জানান, ভোটকেন্দ্রে গোলযোগ সৃষ্টির চেষ্টাকালে আবদুল আলিম নামে একজন নিহত হয়েছেন।

www.bbcsangbad24.com