মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি-
মুন্সিগঞ্জের লৌহজংয়ের পদ্মায় অভিযান চালিয়ে মা ইলিশ ধরার অপরাধে ৫৫ জন জেলেকে আটক করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। আটককৃতদের মধ্যে ৩৭ জনকে ১৫ দিন করে কারাদন্ড দেয়া হয়েছে। এ সময় উদ্ধার করা হয় ১ লাখ ২০ হাজার মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল, ১টি ইলিশ ধরার ট্রলার ও ২৫০ কেজি মা ইলিশ।

লৌহজং উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান আসাদ জানান, রবিবার ভোর রাত আড়াইটা থেকে সকাল ৮টা পর্যন্ত লৌহজংয়ের পদ্মা নদীর বিভিন্ন পয়েন্টে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় বাংলাদেশ নৌ পুলিশ, বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড, লৌহজং থানা ও ব্যাটালিয়ন আনসার মুন্সিগঞ্জের সমন্বয়ে গঠিত যৌথবাহিনী ভ্রাম্যমান আদালতকে সহযোগিতা করেন। লৌহজং উপজেলা মৎস্য বিভাগের সার্বিক সহযোগিতায় এ ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ছিলেন লৌহজং উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কাউছার হামিদ।

অভিযান পরিচালনার সময় ৫৫ জেলেকে পদ্মায় অবৈধভাবে মা ইলিশ ধরার অপরাধে আটক করা হয়। আটককৃতদের মধ্যে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট কাউছার হামিদ ৩৭ জনকে ১৫ দিন করে কারাদন্ড প্রদান করেন। বাকি ১৮ জনের মধ্যে ১৭ জন অপ্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ায় তাদের মোচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়। এক জন প্রতিবন্ধি হওয়ায় তাকেও ছেড়ে দেয়া হয়েছে। উদ্ধারকৃত কারেন্ট জাল আগুণে পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়েছে। জব্দকৃত ইলিশ ১১টি এতিম খানার শিক্ষার্থীদের মাঝে বিলিয়ে দেয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকারী ম্যাজিস্ট্রেট লৌহজং থানার সহকারী কমিশনার ভূমি কাউছার হামিদ বলেন, ৩৭ জনকে ১৫ দিন করে কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে। উদ্ধার হওয়া ২৫০ কেজি ইলিশ মাছ ১১ টি স্থানীয় এতিমখানায় বিতরণ করা হয়েছে।

www.bbcsangbad24.com