দেশ ও মানুষের কথা বলে

দেশের প্রাণবন্ত সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড ছড়িয়ে দিন: শেখ হাসিনা

ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২২,

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলা ভাষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতির প্রতি তরুণ প্রজন্মকে আকৃষ্ট করতে দেশের প্রাণবন্ত সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড যেমন মেলা, উৎসব প্রতিটি জেলায় ছড়িয়ে দেয়ার ওপর জোর দিয়েছেন।

তিনি বলেন, অতীতে দেশের প্রত্যেক জেলা বা মহকুমায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, সহিত্য চর্চা, সাহিত্য সম্মেলন, আলোচনা হোত যে চর্চাটা এখন অনেকটা কমে গেছে। এটাকে আবার একটু চালু করা দরকার।

মঙ্গলবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে রাজধানীতে বইপ্রেমী ও প্রকাশকদের বার্ষিক অনুষ্ঠান অমর একুশে বইমেলা-২০২২ উদ্বোধনকালে প্রধানমন্ত্রী এ মন্তব্য করেন। প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি বাংলা একাডেমিতে আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যুক্ত হয়ে দেশের সবচেয়ে বড় বইমেলার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, এ ধরনের কার্যক্রম আবার চালু করা গেলে অনেক তৃণমূল প্রতিভাবান কবি, শিল্পী, সাহিত্যিক ও সংস্কৃতিকর্মী তাদের প্রতিভা বিকাশের সুযোগ পাবে এবং একই সঙ্গে মানুষ তাদের শারীরিক চাহিদাও পূরণ করতে পারবে।

তিনি বলেন, আমরা খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করেছি। এখন আমাদের মনস্তাত্ত্বিক চাহিদা পূরণ করতে হবে…আমাদের সংস্কৃতি, শিল্প-সাহিত্য নিয়ে এ ধরনের মেলা বা অনুষ্ঠান আয়োজন করা হলে তরুণ প্রজন্ম আর বিপথে যাবে না। কারণ তারাও বাংলাদেশ, বাংলা ভাষা, সাহিত্য, সংস্কৃতিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ থাকবে।

তিনি বলেন, যদিও বিদেশি ভাষা ও সংস্কৃতি শেখা অপরিহার্য, তবে বাঙালি সাংস্কৃতিক চর্চাকে আরও মহিমান্বিত ও প্রসারিত করার জন্য প্রথমে নিজের শিকড় ও সংস্কৃতির প্রচার করা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।

এ সময় প্রতিটি জেলায় এ ধরনের সাংস্কৃতিক মেলা ও অনুষ্ঠানের ব্যবস্থা করতে প্রশাসনকে উদ্যোগী হওয়ার নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, আমি মনে করি, প্রতিটি জেলায় এ ধরনের উদ্যোগ নেয়া উচিত। আমি মনে করি আমাদের প্রশাসনে যারা আছেন তাদের উদ্যোগ নেয়া দরকার। আমরা চাই তারা এই উদ্যোগ নেবে।

এবারের মেলা বসছে রাজধানীর বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণ ও এর পার্শ্ববর্তী সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে। মেলা চলবে ১৫ থেকে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত, তবে করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলে এর মেয়াদ বাড়ানো হতে পারে।

বইমেলা সাপ্তাহিক ছুটির দিন (শুক্র ও শনিবার) এবং সরকারি ছুটির দিন সকাল ১১টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত চলবে। প্রতিদিন দুপুর ২টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। রাত ৮টার পর নতুন করে কেউ মেলায় প্রবেশ করতে পারবেন না। এছাড়া ২১ ফেব্রুয়ারি সকাল ৮টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত চলবে।

শেখ হাসিনা মেলার মেয়াদ এক মাস বাড়ানোর কথাও বলেন। তিনি বলেন, যেহেতু আমরা  সময় সূচির পিছনে মেলা শুরু করেছি, ১৫ ফেব্রুয়ারি, আমি মনে করি আমরা এটি পুরো এক মাস চালিয়ে যেতে পারি।

তিনি আরও বলেন, এছাড়াও, প্রকাশকদের কাছ থেকে এর মেয়াদ বাড়ানোর দাবিও রয়েছে।

তিনি একা সিদ্ধান্ত নেবেন না উল্লেখ করে, তিনি এ বিষয়ে কি করা যায় তা বিবেচনা করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার-২০২১ পুরস্কারপ্রাপ্তদের মধ্যে পুরস্কার দেন।

তার পক্ষে সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ ১১টি ক্যাটাগরিতে ১৫ জনের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। প্রত্যেক পুরস্কারপ্রাপ্তকে তিন লাখ টাকার চেক, একটি ক্রেস্ট ও সনদপত্র দেয়া হয়।

www.bbcsangbad24.com

Leave A Reply

Your email address will not be published.