দেশ ও মানুষের কথা বলে

ক্ষেতলালে দুর্বৃত্তের হাতে বিকাশ ব্যবসায়ী জখম, অবস্থা আশঙ্কাজনক

মার্চ,,০৪,২০২২

ফারহানা আক্তার, জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃ

জয়পুরহাট ক্ষেতলালে দুর্বৃত্তের হাতে এক বিকাশ ব্যবসায়ী গুরুতর জখম হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮,টার দিকে ইটাখোলা টু গোপিনাথপুর চৌমুনি তাহার বাড়ি পাকা রাস্থ চত্বর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত বিকাশ ব্যবসায়ী মেহেদিহাসান (২৫) ক্ষেতলাল উপজেলার মামুদপুর নারায়ন পাড়া গ্রামের আলহাজ্ব উফির প্রধানের ছেলে।
ঘটনার স্থলে স্থানিয়রা আহত মেহেদিকে উদ্ধার করে ক্ষেতলাল হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক
রাতেই উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে শহিদ জিয়উর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে মেহেদির অবস্থা এখনও আশঙ্কাজনক।
জানা যায়, বিকাশ ব্যবসায়ী মেহেদি বহু বছর ধরে চৌমুনি বাজারে বিকাশ ব্যবসা করে আসছে।
মেহেদি ঘটনার দিন চৌমুনি বাজারে দোকানদারী শেষে প্রতিদিনের মতো সকালে আসে সন্ধা রাতে বাজার থেকে তার দোকানে বন্ধ করে । বাসায় ফেরার পথে দূর্বত্তের হামলায় মেহেদির নাভি বরা বর ডান পাসে গুরুতর রক্তাক্ত জখম হয়।
ওই বাজারের কিটনাশক ব্যবসায়ী সুজাউল জানান, বাজার থেকে সামান্ন দুরে ঘটনার স্থলে দৌরো গিয়ে । দেখতে পাই তার পেটে ছুরি মারা হয়েছে আসপাসের লোকজন শুনে দ্রুত তাকে ঘটনার স্থল থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে ক্ষেতলাল হাসাপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে তাকে বগুড়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।
স্থানীয় সাগর জানান,মেহেদি অত্যন্ত অমায়িক এবং মিসুক স্বভাবের লোক। সে ৫/৬ বছর চৌমনি বাজারে দোকানদারি করছে, আমি যতদুর জানি সবার সাথে তার একটা ভালো সম্পর্ক। আমি ওই রাতে সাড়ে ৮ টার দিকে মেহেদির দোকানের সামনে দিয়ে আসি। তখন তার দোকান বন্ধ ছিলো।
মেহেদির বড় ভাই মামুনুর রশিদ বলেন বাজারে আমার
গার্মেন্টস ব্যবসা আছে খবর পেয়ে ঘটনার স্থলে ছোট ভাইকে দেখি তার অবস্থা আশঙ্কাজনক ওই রাতেই আমরা থানায় অভিযোগ দিয়েছি৷
এ বিষয়ে অফিসার ইনচার্জ মোঃ রওশন ইয়াজদানী বলেন, স্থানিয় চেয়ারম্যন মোঃ মশিউর রহমান সামিম জানালে খবর পেয়ে ওই রাতেই ঘটনাস্থালে যাই। তবে মেহেদির অবস্থা খুবই গুরুতর। বগুড়া মেডিকেলে তার চিকিৎসা চলছে। মেহেদির পরিবার থেকে থানায় অভিযোগ দিয়েছে আমরা অভিযান অব্যহত রেখেছি৷

www.bbcsangbad24.com

Leave A Reply

Your email address will not be published.