দেশ ও মানুষের কথা বলে

মুন্সীগঞ্জে জমি সংক্রান্ত বিরোধে প্রতিপক্ষের হামলায় মহিলাসহ ৬ জন আহত !

মার্চ,১৬,২০২২

তুষার আহাম্মেদ, মুন্সীগঞ্জ:

মুন্সীগঞ্জের চরাঞ্চলের জমি সক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় মহিলাসহ ৬ জন আহত হয়েছে।আহতরা হলেন-মো: জাকির হোসেন সজিব, মো: এবাদুল্লাহ দেওয়ান, জেসমিন বেগম, মনির হোসেন সুজন, মুন্নী আক্তার ও নাদিয়া বেগম। গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে সদর উপজেলার চরাঞ্চলের মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের চরবেসনাল এলাকায় এই সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে মালোয়েশিয়া ফেরত মো: জাকির হোসেন সজিব (২৫) তার বাবা মো: এবাদুল্লাহ দেওয়ান (৬০) ও তার মা জেসমিন বেগমকে (৪৮) ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করা হয়েছে। আহতদের সবাইকে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
জানা গেছে,গতকাল সকাল সাড়ে ৭টার দিকে চরাঞ্চলের মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের চরবেসনাল এলাকায় স্থানীয় মাইনুউদ্দিন আখন ও আনোয়ার হোসেন বাবুসহ ২০/২২জনের একটি সন্ত্রাসী গ্রুপ ধারালো অস্ত্র নিয়ে মো: এবাদুল্লাহ দেওয়ানের বাড়িতে আর্তকিত হামলা চালায়।ওই সময় অনেকে ঘরের ভেতর ঘুমন্ত অবস্থায় ছিলেন।সন্ত্রাসীদের হামলায় মো: জাকির হোসেন সজিব,মো: এবাদুল্লাহ দেওয়ান,জেসমিন বেগম,মনির হোসেন সুজন, মুন্নী আক্তার ও নাদিয়া বেগম নামে ৬জন আহত হয়।
এদিকে আহত মো: জাকির হোসেন সজিবের খালা রওশন আরা বেগম বলেন, জায়গা সম্পতি নিয়ে নুরুল ইসলাম,মইনউদ্দিন আকন ও আলমেস দেওয়ানের সাথে আহত এবাদুল্লাহ দেওয়ান ও তার ভাই হাবুদুল্লাহ দেওয়ার বিবাদ চলছিলো।এ ঘটনাকে কেন্দ্র করেই নুরুল ইসলাম,মইনউদ্দিন আখন ও আলমেস দেওয়ানসহ সন্ত্রাসীরা সকালে ঘুমন্তবাড়িতে ঢুকে হামলা চালায় ও বাড়িঘর ভাংচুর করে ও লোকজনদের কুপিয়ে জখম করেছে।
অপরদিকে আহত মো: জাকির হোসেন সজিব জানান,কিছুদিন হয়েছে আমি বিদেশ থেকে বাড়িতে এসেছি।হামলাকারীরা আমাদের বাড়ি থেকে বেরুনোর রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে।তার প্রতিবাদ করেছি।এ জন্য তারা আমাদের উপর হামলা চালিয়ে শরীর কুপিয়েছে।বাড়িঘর ভাংচুর করেছে।স্বর্ণলংকারসহ টাকা নিয়ে গেছে।
এদিকে এ ঘটনার বিষয়ে মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বক্কর সিদ্দিক জানান,ঘটনা শুনার পর এলাকায় পুলিশ প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত জালাল উদ্দিন আখন নামে একজনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

www.bbcsangbad24.com

Leave A Reply

Your email address will not be published.