দেশ ও মানুষের কথা বলে

আবারও নিউ মার্কেটে সংঘর্ষ শুরু

এপ্রিল ১৯, ২০২২,

নিজস্ব প্রতিবেদক

সোমবার দিবাগত রাতে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে সংঘর্ষের জেরে রাজধানীর নীলক্ষেত মোড়ে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) সকালে আবারো ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

ঢাকা কলেজের মূল ফটকের ভেতরে থাকা ছাত্রদের লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করতে দেখা গেছে ব্যবসায়ীদের। মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) সকাল ১০টা ৪০ মিনিটের দিকে পুনরায় এ ধাওয়া পাল্টাধাওয়ার ঘটনা শুরু হয়।

এর আগে সকাল থেকেই নিউমার্কেট এলাকা অবরোধ করে রাখে শিক্ষার্থীরা। এতে নিউমার্কেটের সকল দোকানপাট বন্ধের সঙ্গে সড়কের উভয় পাশে যানবাহন চলাচলও বন্ধ হয়ে গেছে।

মঙ্গলবার সকাল থেকে সায়েন্স ল্যাবরেটারি, নিউমার্কেট, নীলক্ষেত ও তার আশপাশের এলাকা ঘুরে দেখা যায়, নিউ মার্কেট এলাকার সব দোকানপাট। একই সঙ্গে সায়েন্স ল্যাবরেটরি থেকে আজিমপুর পর্যন্ত সড়কের উভয় পাশের যান চলাচলও বন্ধ রয়েছে। পুরো এলাকাজুড়ে বিরাজ করছে থমথমে পরিস্থিতি।

অপরদিকে শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশের গুলিবর্ষণের প্রতিবাদে জড়ো হয় ঢাকা কলেজের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। ঢাকা কলেজের সামনের মিরপুর রোডে নায়েমের গলির সামনে জড়ো হতে দেখা যায় বেশ কিছু ছাত্রকে।

সোমবার (১৮ এপ্রিল) রাত ১২টার দিকে এই সংঘর্ষ শুরু হয়। উত্তেজনা চলে ভোর পর্যন্ত। এ ঘটনার জের ধরে নিউমার্কেট খুলতে না দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা।

এর আগে সংঘর্ষের শুরুর দিকে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা শুরু করে। এ সময় উভয় পক্ষকে শান্ত করার চেষ্টা ব্যর্থ হলে তাদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ার শেল ছোড়ে পুলিশ। একপর্যায়ে সংঘর্ষ থামলেও নিউ মার্কেট এলাকাজুড়ে রাতভর উত্তেজনা বিরাজ করে।

পুলিশের ধাওয়ায় ছত্রভঙ্গ হয়ে যাওয়ার পর রাত আড়াইটার দিকে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা আবারও ঐক্যবদ্ধ হয়ে ক্যাম্পাস থেকে বেরিয়ে আসেন। এ সময় তারা পুলিশের মুখোমুখি অবস্থান করে বিভিন্ন স্লোগান দিতে শুরু করেন। শিক্ষার্থীরা দাবি করেন, পুলিশের ছোড়া রাবার বুলেটে তাদের অনেকেই আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার সকাল পৌনে ১০টায় নিউ মার্কেট থানার পরিদর্শক (অপারেশন) হালদার অর্পিত ঠাকুর বলেন, নিউ মার্কেট এলাকায় বর্তমানে থমথমে অবস্থা। ছাত্ররা তাদের অবস্থানে আছে। নিউ মার্কেটের ব্যবসায়ীরাও তাদের অবস্থানে আছে। আমরাও ঘটনাস্থলে আছি।

তিনি আরও বলেন, নিউ মার্কেট আপাতত বন্ধ। কখন দোকান খুলবে সেটা এখনও বলা যাচ্ছে না। আজকে এখন পর্যন্ত কোনো সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে নাই।

রাতে শিক্ষার্থীরা জানান, নিউমার্কেটের ব্যবসায়ীরা তাদের এক সহপাঠীর ওপর হামলা চালিয়েছেন। পরে কলেজের আবাসিক হল থেকে শিক্ষার্থীরা বের হয়ে নিউমার্কেটে যান। এ সময় নিউমার্কেটের কিছু দোকান ভাঙচুর করা হয়। এর পাশাপাশি কিছু ব্যবসায়ীকেও মারধর করা হয়। এরপরই নিউমার্কেটের ব্যবসায়ীরা লাঠিসোঁটা নিয়ে বেরোলে দুই পক্ষের সংঘর্ষ শুরু হয়।

অপরদিকে ব্যবসায়ীরা বলেছেন, নিউমার্কেটের একটি ফাস্টফুডের দোকানে খাবার খেয়ে টাকা না দিয়েই চলে যাচ্ছিলেন ঢাকা কলেজের কয়েকজন ছাত্র। এ নিয়ে ছাত্রদের সঙ্গে দোকানের লোকজনের বাকবিতণ্ডা হয়। এরপরই ঢাকা কলেজের ছাত্ররা এসে দোকান ভাঙচুর করতে থাকে। পরে ব্যবসায়ীরা বের হন।

এদিকে ঢাকা কলেজের মঙ্গলবারের সব ক্লাস ও পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। একই সঙ্গে কলেজের সব শিক্ষককে সকাল ১০টায় ক্যাম্পাসে উপস্থিত থাকার অনুরোধ জানানো হয়। কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ এ অনুরোধ জানিয়েছেন।

সোমবার রাতে কলেজের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট ও ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ কথা জানানো হয়।

ওয়েবসাইট ও ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে বলা হয়, অনিবার্য কারণে ১৯ এপ্রিল ঢাকা কলেজের উচ্চমাধ্যমিক ও অনার্স-মাস্টার্স শ্রেণির সব ক্লাস-পরীক্ষা স্থগিত করা হলো। শিক্ষকদের ১৯ এপ্রিল সকাল ১০টার মধ্যে কলেজে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ করা হলো।

www.bbcsangbad24.com

Leave A Reply

Your email address will not be published.