দেশ ও মানুষের কথা বলে

ভুমিহীনদের জমি দখলে সিটি গ্রূপ

এপ্রিল,২০,২০২২

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি:

মুন্সীগঞ্জ জেলার গজারিয়া উপজেলার অর্ন্তগত হোসেনদী ইউপির রঘুরচর ও হোসেনদী মৌজার প্রায় ্একশত একর খাস খতিয়ানের সম্পত্তি দলিলমূলে সরকার অসহায় দুস্থ্য ভুমিহীনদের মাঝে শর্তসাপেক্ষে বরাদ্দ দেয়।শর্তে উল্লেখ্য থাকে যে সেই সম্পত্তি কারো নিকট বিক্রি করা যাবেনা। কিন্তু সিটি  গ্রূপ কতৃক বর্তমান হোসনদী ইউপি ৭নং ওয়ার্ড মেম্বার মহিউদ্দি মোল্লাকে এজেন্ট নিয়োগ করে সরকারী শর্তের তোয়াক্কা না করে অবৈধভাবে ভুমিহীনদের উচ্ছেদ করে –ভিটা মাটি ছাড় করে দখল করে নেয়।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উল্লেখিত রঘুরচর গ্রামের কোন অস্তিত্ব নেই। সেখানে সমস্ত ঘরবাড়ি উৎপাটনসহ বালি দিয়ে ভরাট করে সিটিগ্রæপ দখল করে নিয়েছে।

এ বিষয়ে বর্তমান গজারিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম সাহেবের সাথে আলাপকালে আননন্দবাজারকে জানান,আমি এলাকাবাসিসহ একাধিকবার আন্দোলন করেও প্রভাবশালী সিটিগ্রæপের অবৈধ-হীন কর্মকান্ড ঠেকাতে যায়নি।

বর্তমানে ভুমিহীন প্রান্তিক চাষীদের সরকার কর্তৃক বরাদ্দকৃত সম্পত্তি তাদের দখলে নেই। সমস্ত সম্পত্তিই সিটিগ্রæপের দখলে রয়েছে।

সিটি গ্রæপের নিয়োগকৃত এজেন্ট মহিউদ্দিন মেম্বারের সাথে আলাপকালে তিনি বলেন,আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগটি সঠিক নয় বলে ফোন কেটে দেয়।

তবে হোসেনদী ইউপি চেয়ারম্যান আক্তার হোসেন বলেছেন,একসময় রঘুরচর গ্রামটি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায়। পরে যখন আবার চর জাগে তখন সরকার ভুমিহীনদের বরাদ্দ দেয় দলিলসহ। পরে খান এন্ড ব্রাদার্স গ্রæপ ভুমিহীনদের কাছ থেকে ক্রয় করে বেঙ্গল গ্রæপের কাছে বিক্রি করে। বেঙ্গল গ্রæপ আবুল খায়ের গ্রæপের কাছে বিক্রি করে। বর্তমানে ঐ সম্পত্তি খায়ের ও সিটি গ্রæপের দখলে রেখে মাাটি ভরাট করছে। তিনি  অবৈধ দখলকারীদের উচ্ছেদ দাবী করেন।

এবিষয়ে মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক কাজী নাহিদ রসুলের সাথে আলাপকালে তিনি আনন্দবাজারকে বলেন, কবুলিয়াত দলিলের সম্পত্তি কখনো হস্তান্তরপ যোগ্য নয়। তাছাড়া এই স্থানটি কোথায় আমি জানিনা। তবে আমি গজারিয়ার ইউ এন ও এর সাথে আলাপ করে খোঁজখবর নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহন করব।

www.bbcsangbad24.com

Leave A Reply

Your email address will not be published.