দেশ ও মানুষের কথা বলে

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় শিক্ষার্থী শূন্য বিদ্যালয়ে শিক্ষকের হাজিরা

এপ্রিল,২০,২০২২

মুকবুল হোসেন,(গজারিয়া) মুন্সীগঞ্জ:

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলা হোসেন্দী ইউনিয়ন ৫০ নং চর বলাকি নতুন চর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শিক্ষার্থীশূন্য হয়ে পড়েছে। বিদ্যালয়ে কর্মরত ৩ জন শিক্ষকদের হাজিরা নিয়মিত রয়েছে। গত সোমবার ১৮ এপ্রিল সকাল ১১ টায় স্থানীয় একাধিক সংবাদ কর্মী সরোজমিনে স্কুল পরিদর্শনে স্কুলে যাওয়ার চেষ্টায় ব্যর্থ হন। হোসেন্দী ইউনিয়ন সিটি গ্রুপ কোম্পানি কর্তৃপক্ষের চতুর্দিকে সীমানা বেড়া থাকায় স্কুলে যাওয়ার পথ বন্ধ হয়ে গেছে । সংবাদকর্মী মোঃ মুকবুল হোসেন, মোঃ আলমগীর হোসেন ,৫০ নং চর বলাকি নতুন চর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পরিদর্শনে যাওয়ার অনুমতি চেয়ে অনুমতি নিতে ব্যর্থ হন। সিটি গ্রুপের প্রধান ,প্রবেশ পথে নিরাপত্তা প্রধান কর্মী মোঃ রফিকুল ইসলাম জানান রমজান উপলক্ষে প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ। সেখানে কোনো শিক্ষার্থী এবং শিক্ষক উপস্থিত নেই । স্কুল পরিদর্শনে যাওয়ার অনুমতি দেয়া যাবেনা। নিরাপত্তাকর্মী রফিকুল ইসলামকে জানানো হয় স্কুল খোলা আছে এবং প্রধান শিক্ষক স্কুলে উপস্থিত আছেন ।আপনি মিথ্যা কথা কেন বললেন, উত্তরে তিনি জানান সিটি গ্রুপ কোম্পানির সংরক্ষিত এলাকায় স্কুলে যাওয়া নিষেধ আছে । সিটি গ্রুপ কোম্পানির প্রশাসনিক কর্মকর্তা শফিউল্লাহ মোবাইলে জানান স্কুল বন্ধ রয়েছে এবং কোন প্রধান শিক্ষক ও শিক্ষার্থী স্কুলে নেই। আপনাদের কোন কাজ নেই।

বুধবার সকাল দশটায় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহরিন সুলতানা মোবাইলে জানান খাতা-কলমে ১০ থেকে ১২ জন শিক্ষার্থী স্কুলে আছে। দুই দিন ধরে কোন শিক্ষার্থী স্কুলে উপস্থিত হয় না ।বিদ্যালয়ে কর্মরত ৪ জন শিক্ষকের মধ্যে ৩ জন শিক্ষক আমরা উপস্থিত আছি। স্থানীয় সূত্রে জানা যায় সিটি গ্রুপ কোম্পানি লিমিটেড চর বলাকি নতুন চর গ্রামের বসবাসরত সকল নারী-পুরুষের বসতভিটা ও জমি ক্রয় করেছে । স্কুলসহ এলাকার চতুর্পাশে সিটি গ্রুপ কোম্পানি লিমিটেড সীমানা বেড়া দিয়ে ঘেরা রেখেছে। বেড়া ভেদ করে অথবা কোম্পানির অনুমতি ব্যতীত কোন লোক স্কুলে যাওয়ার সুযোগ নেই। গ্রামের সকল নারী পুরুষ পৈত্রিক বসতভিটা ঐতিহ্য ছেড়ে অন্যত্র নিজ নিজ বাসস্থান করে নিলেও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষার্থীশূন্য হয়ে শিক্ষকদের হাজিরায় চলছে স্কুল পাহারা।
হোসেন্দী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হাজী আক্তার হোসেন জানান এটি শিক্ষার্থীশূন্য স্কুল। স্কুলে সংবাদকর্মীদের যেতে না দেয়া কোম্পানির অধিকার নেই । উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মমতাজ বেগম জানান শিক্ষার্থীরা কম কারণ সে এলাকায় বাড়িঘর নেই । সিটি গ্রুপ নিয়ে কোন মতামত দিতে তিনি রাজি নেই। স্কুল যতদিন বিদ্যমান আছে । শিক্ষকরা ততদিন স্কুলে হাজির থাকবে।

www.bbcsangbad24.com

Leave A Reply

Your email address will not be published.