দেশ ও মানুষের কথা বলে

পুরানবাজার খেলাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ পুলিশ সহ আহত শ্বতাধিক,

আগস্ট,২৭,২০২২

এস আর শাহ আলম চাঁদপুর থেকে:

চাঁদপুর শহরের পুরানবাজার ফুডবল খেলাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ আহত প্রায় শ্বতাধিক হবার খবর পাওয়া গেছে।
শুক্রবার বিকেলে ১ নং ওয়ার্ড মোম ফ্যক্টরি ও মধ্যম শ্রীরামদী এলাকার মাঝে মধু সূদন উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ফুডবল খেলার ফাইনাল খেলায় মোম ফ্যাক্টরি দলের বিজয় হলে, মধ্যম শ্রীরামদি এলাকা না মেমে মাঠেই মারামারি করে, তাৎক্ষনিক পুরানবাজার ফাঁড়ি পুলিশ নিয়ন্ত্রণ করে, সন্ধার পরে পুলিশ ফাড়িতে বসে সমাদান করার সময়, ২ নং ওয়ার্ড এর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ কামাল হাওলাদার ও ওয়ার্ড যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম এর লোকজন উত্তেজিত হয়ে ফাড়ি থেকে বের হয়ে নতুন রাস্তায় দুই পক্ষ তুলুম মারামাড়িতে লিপ্ত হয়,
এলাকাবাসি ও মোম ফ্যক্টরি বাসিন্দারা জানান, কামাল ও নজু গ্রুপের লোকজন দেশীয় অশ্র সশ্র নিয়ে নতুন রাস্তার উপরে থাকা দোকান পাট সহ বাসা বাড়িতে হামলা চালায়, তাদের হামলার কারনে দুই পাশের দোকান পাট সহ বাসা বাড়ি আনুমানিক ৩০-৪০ ঘর ভাংচুর করেন,
তাদের হামলা প্রতিরোধে মোম ফ্যক্টরির নারি পুরুষ একতা হয়ে লাঠি সোটা নিয়ে হামলা কারিদের ধাওয়া করলে দুই পক্ষের মাঝে তুমুল সাংর্ঘষে লিপ্ত হয়, উভয় পক্ষের ইট পাটকেল ও কাচের বোতল নিক্ষেপের চাপা কলে, দুই পক্ষের প্রায় ১ শ মানুষ আহত হয়, একই সময় পুরানবাজার পুলিশ ফাড়ির পুলিশ দায়িত্ব পালন অবস্হায় আনুমানিক ৫-৭ জন পুলিশ আহত হয়, অনেকের পায়ে এবং শড়িলে ইটের আগাত পরে বলে দেখা যায়,
এদিকে দীর্ঘ দুই ঘন্টা দুই পক্ষের সংর্ঘষ্য নিয়ন্ত্রণ করতে পুরানবাজার পুলিশ কঠোর ভুমিকার দায়িত্ব পালন করেন, তার পরেও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া চলতে থাকে, পরে চাঁদপুর সদর মডেল থানায় অবগত করলে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রশিদ পুলিশ টিম পাঠালে নতুন বাজার আর পুরানবাজার পুলিশ একতাবদ্ধ হয়ে, দুই গ্রুপের সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণ করতে প্রায় -৫ রাউন্ড ফাকা রাবার বুলেট ও ৪-৫ রাউন্ড টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করে দুই পক্ষের সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হয় বলে পুরান বাজার পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ কামরুজ্জামান আমাদের তাৎক্ষনিক আনুমানিক হিসেব হিসেবে জানান।
এদিকে মামুন নামে একজন রাবার বুলেটে আহত হন বলে জানা যায়।
এদিকে বিপুল পরিমান পুলিশ ও ডিবি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে পুরো এলাকা, তবে দফায় দফায় ধাওয়া করার চেষ্টা করে দুই গ্রুপের লোকজন , বর্তমানে এলাকায় থমথম বিরাজ করছে, এই খবর লেখা পর্যন্ত পুলিশ কাহকে আটক করেনি, কারন পুলিশের উপস্থিতিতে হামলাকারিরা পলায়ন করেন

www.bbcsangbad24.com

Leave A Reply

Your email address will not be published.