Home সাহিত্য

সাহিত্য

“সুখের গৃহকোণ”

সেপ্টেম্বর,১১,২০২১ “সুলেখা আক্তার শান্তা”  বড় কষ্ট হয় যখন সাদিয়ার মুখের দিকে তাকাই। সারাদিন না খেয়ে আছে। ওর মুখে আমি কোন খাবার দিতে পারিনি। আমি তখন শান্তি পাই যখন ওর মুখে খাবার দিতে পারি। বউয়ের মুখে এ কথা শুনে মনির চেঁচিয়ে ওঠে। এসব কথা শুনতে আমার ভালো লাগেনা, ব্যথায় আমার বুক ফেটে থেকে উঠে। পঙ্গু পা নিয়ে পারিনা কাজ করতে। কেউ...

“অগ্নি পুরুষ”

আগস্ট,১০,২০২১ “বিচিত্র কুমার”  দাদুর মুখে শুনেছি আমি বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিকথা, অগ্নি পুরুষ ছিলেন তিনি এ স্বদেশের পিতা। ঊনিশ'শ একাত্তার শক্রপক্ষ যখন এ স্বদেশ ছিনিয়ে নিতে চায়, তখন বাঙলির ঘরেঘরে আগুন জ্বলে শতশত মা বোন ইজ্জত হারায়। মুজিব বলে মুক্তকণ্ঠে,দেও রক্ত স্বদেশ সন্তান? নইলে, শক্রপক্ষ এ ভূখণ্ড দখল নিতে চায়, কত লোক বুলেট খেয়ে মারা যায় আয় রে তোরা ছুটে আয়। স্বদেশ মাতাকে ছিনিয়ে নিতে নরপশু এসেছিলো যারা, দেশের বীর ছুঁড়ে ছিল...

“জীবন তো থেমে নেই”

আগস্ট,০৬,২০২১ “সুলেখা আক্তার শান্তা” ঝন্টু আর পিন্টু দুই ভাই। ঝন্টুর বারো বছর বয়সের ছোট পিন্টু। ছোট ভাইয়ের সব ব্যাপারে লক্ষ রাখে বড় ভাই ঝন্টু। মা রাহেলা ছোট ছেলে পিন্টুর জন্য কিছু করতে গেলে বড় ছেলে ঝন্টু বলে, মা আমার ভাইয়ের যা কিছু করার দরকার সব আমি করব, তোমার ওর কিছুই করতে হবে না। ভাই পিন্টুকে কখনো বুকে কখনো মাথায়...

“পিঁপড়া”

জুলাই,১৪,২০২১ “বিপ্লব গোস্বামী”  প্রতিদিনের মত সেদিনও স্কুল শুরু হতেই শর্মা স‍্যার ক্লাসে এলেন।রোলকলের পর যথারীতি ক্লাস শুরু করলেন।আমরা সবাই মনোযোগ দিয়ে ক্লাস করছি।এমন সময় স‍্যার বললেন, "পিয়ালী তোমার মনোযোগ কোথায় ? সবাই মনযোগ সহকারে ক্লাস করছে আর তুমি জানলা দিকে কি দেখছ ?" পিয়ালী দাঁড়িয়ে মাথা নিচু করে রইল।স‍্যার বললেন , "পিয়ালী আমি কিছু জিজ্ঞেস করছি...

“নিঃশব্দ কান্না”

জুলাই,০৫,২০২১ “সুলেখা আক্তার শান্তা”  সারাক্ষণ তোমার একই কথা বাপের বাড়ি যা বাপের বাড়ি যা। শুনতে আমার আর ভালো লাগে না। মেয়েদের বিয়ের পর স্বামীর বাড়ি হয় নিজের বাড়ি। সুজেনা বলে স্বামীকে। স্বামী সুজন বলেছে, তা তো বলবই। স্বামীর বাড়ি আপন আর হইতে হবে না। আমি বলছি বাপের বাড়ি যেতে, তখন বাপের বাড়ি যাবি। এখানে আর থাকতে হবে...

“বর্ষারাণী”

জুলাই,০১,২০২১ “বিচিত্র কুমার”  ছলাৎ ছলাৎ জলে মেয়ে কুটিকুটি হেসে বর্ষারাণী হাতছানি দেন একাকী আমায় বাহিরে, চুলগুলো তার দীঘলকালো আষাঢ়ের মেঘের মতো নিপুণ হাতে কচি পাতার বোনা শাড়ি পড়ে দাঁড়িয়ে। দু'কানে তার ঝুমকা দোলে কদম ফুলে ফুলে নাকের নথ বানিয়ে নিয়েছে কলমিলতা দিয়ে, খোঁপাতে তার ফুলের সুবাস বর্ষার ফুল বেঁধে ডাগর ডাগর দু'চোখ মেলে চায় যেন মেয়ে। হলুদ বর্ণ রূপ তার মায়াবী মুখের হাসি যেন হাজার...

“ঘুমঘোর”

জুলাই,০১,২০২১ “আশিক রাসেল”  শান্তিপূর্ণ শব্দ চয়ন করা মাত্রই এক নাম ঘুম! মনের ভাবাবেশে ক্লান্ত দেহে এটা মানাই। নিস্তব্ধতা বহণ করা এমন ঘুম যখন অচিরে নিয়ে যাবে না ফেরার দেশে, আহা!তখনই বুঝে আসে দেহত্যাগ! চোখের অশ্রুর কল্লোলে মন নিস্তেজ হয়ে আসে। ভাষাহীন হয়ে পড়ে পরস্পর দুই নেত্র। মুখচন্দ্রিকা ও যেন মলিন হয়ে অন্ধকারাচ্ছন্ন! নিস্তব্ধতা সেই দেহখানা গহ্বরে চলে যাবে বুকের ব্যাথাটা অজান্তেই জোয়ার-ভাটার ন্যায়...

“সুখের আশা”

জুন,২৯,২০২১ “সুলেখা আক্তার শান্তা”  ছোট্ট একটা সংসার সাজানো গোছানো মায়া মমতায় ভরা। বাহার আর বানিয়ার একমাত্র ছেলে নয়ন, ছেলেকে নিয়ে হাসিখুশিতে কেটে যায় তাদের দিন।বাহার স্ত্রীকে বলল মাঝে মাঝে জাহিদ ভাইয়ের সাথে দেখা হয়, সে আমাকে বিদেশের কথা বলে, দেশে থেকে কি করবা তার চেয়ে বিদেশে গিয়ে ভালো জীবন যাপন করো। দেখো না আমি কতজনকে বিদেশ...

“হোলা ব্যাঙের বিয়ে”

জুন,২৭,২০২১ “বিচিত্র কুমার”  বৃষ্টি বাদল দিনে হোলা ব্যাঙের বিয়ে, ছাতা মাথায় দিয়ে সোনা ব্যাঙের মেয়ে। তাক্ ধুম ধুম তাক্ বাজে ঢুলি ঢাক, দোয়েল টিয়া ময়ান নাচে বর যাত্রীর সাথ। ইঁদুর বিড়াল শিয়ালেরা দেখতে আসে বিয়ে, চোখ মেলিয়ে বর চায় লম্বা দুটি পায়ে। (ছড়া)

“একবিংশ শতাব্দীর মেয়ে”

জুন,২৬,২০২১ “বিচিত্র কুমার” ওগো একবিংশ শতাব্দীর মেয়ে তোমার মনটা চাই দিবে, তোমার দু'চোখের অশ্রু চাই আমাকে একটু দিবে। তোমার দুঃখ চাই তোমার কষ্ট চাই তোমার অভিমান চাই অনুরাগ চাই, তোমার অনুভব চাই অনুভূতি চাই তোমার স্নেহ চাই ভালোবাসা চাই। তোমার মুখশ্রীর মিষ্টি হাসি চাই তোমার বাঁকা নয়নের গভীরতা চাই, তোমার নিখুঁত প্রেমের ভালোবাসা চাই তোমার অন্তরের একটু সুখ চাই তোমার দুফোঁটা অশ্রু চাই তোমার নরম হাতের স্পর্শ চাই, তোমার খোঁপার...
0FansLike
0FollowersFollow
0FollowersFollow
17,700SubscribersSubscribe

Weather

- Advertisement -

Must Read